অনলাইন ইনকামক্যারিয়ার গাইডলাইন

ইউটিউব মনিটাইজেশন ২০২০- ইউটিউবে আয় পর্ব ০৪

আপনি কি  ইউটিউব থেকে আয় করতে চান? হাজার হাজার  ডলার ইনকাম করতে চান? তার জন্য যেটা আপনাকে প্রথমে একটি  ইউতিউব  চ্যানেল খুলতে হবে। সেই সাথে চ্যানেলে আপলোড করার জন্য লাগবে ভালো মানের ভিডিও।তবে সেটা কোনোভাবেই কপি  বা অন্য কোনো চ্যানেল থেকে ডাউনলোড করে আপলোড করা যাবে না।সেই সাথে ভিডিওতে কোন কপিরাইটেড গান বা দৃশ্য ব্যবহার করা যাবে না যদিনা আপনার কাছে গান বা দৃশ্যটি ব্যবহার করার অনুমতিপত্র থাকে।

ইউটিউব মনিটাইজেশন ২০২০

 সবসময়ে চ্যানেল অনুযায়ী নির্দিষ্ট টপিক বা বিষয়ের উপরেই ভিডিও তৈরি করতে হবে।যদি আপনি খেলাধুলা বিষয়ে ভিডিও বানাতে চান তাহলে সেই সম্পর্কেই বানাবেন।আবার যদি নিজে গান গেয়ে বা নিজের নাচের ভিডিও আপলোড করতে চান তাহলে শুধু শয়ে বিষয়েই ভিডিও আপলোড করবেন। উদাহারণ হিসেবে FREELANCE HELPLINE এর চ্যানেল দেখতে পারেন। এখানে সকল ভিডিও ফ্রীল্যান্সিং এর উপরেই তৈরি করা। যদি আপনি একাধিক টপিক বা বিষয়ের উপর ভিডিও মিক্স করে ফেলেন তবে ভিজিটরের পরিমাণ কমে যাওয়ার চান্স বেশী। আর প্রতিটি ভিডিওতে আপলোড করার সময় সঠিক নাম (Video Title) এবং প্রয়োজনীয় কীওয়ার্ড (Keyword) যুক্ত করতে হবে। কীওয়ার্ড বলতে কি কি ওয়ার্ড লিখে গুগল বা ইউটিউব এ সার্চ দিলে আপনার ভিডিওটি আসবে সেটা। তবে প্রয়োজনের বেশী কীওয়ার্ড ব্যবহার না করাই ভালো। এছাড়া আপনার চ্যানেল ভালোভাবে সাজিয়ে নিতে হবে। যেমন কভার ফটো, চ্যানেল আর্ট ইত্যাদি ব্যবহার করে চ্যানেলটি প্রফেশনাল ডিজাইনের করে নিতে হবে।

আপনি কীভাবে আপনার চ্যানেল মনিটারাইজ করতে পারবেন??

ইউটিউবে মনিটাইজেশন ঠিক এমনই একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে ভিডিও মনিটাইজ করে অর্থ উপার্জন করা যায়। মূলত ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জনের জন্য ইউটিউব মনিটাইজেশন ইনেবল করতে হয়। তবে শুরুতেই একাউন্ট খুলে চ্যানেলে মনিটাইজেশন অপশন পাওয়া যাবেনা। YouTube ভিডিওটি আপলোড করার পর পরই চাইলে ভিডিওটি গুগল বিজ্ঞাপনের জন্য এনাবেল করা যাবে। এজন্য YouTube একাউন্টটিকে AdSense একাউণ্টের সাথে কানেক্ট করতে হবে। এক্ষত্রে, AdSense একাউন্ট না থাকলে একটি একাউন্ট খুলে নিতে হবে আর YouTube এ Monetization অপশনটি এনাবেল করতে হবে। আর নতুন ইউটিউব একাউন্ট হলে মনিটাইজেশন অপশনটি পেতে হয়তো একটু অপেক্ষা করতে হবে। এরপর যেই ভিডিও আপলোড করা হোক না কেন, সেটি হতে হবে সম্পূর্ন নিজস্ব কাজ। ভিডিওটিতে প্রদর্শিত এ্যাড থেকে ইনকাম শুরু হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে ভিডিওটি যেন ইউনিক হয়। আর একটি কথা তাড়াতাড়ি মনিটাইজেশন ইনেবল করতে চাইলে চ্যানেলে ইউনিক ভিডিও আপলোড করতে হবে এবং সাবস্ক্রাইব বাড়াতে হবে আর এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করতে হবে।

মনিটাইজেশন এপ্লিকেশন এর নতুন শর্ত

চ্যানেল মনিটাইজ করার জন্য ইউটিউব তাদের নতুন আপডেটে ৪টি শর্ত দিয়েছে।

১। চ্যানেলে কমপক্ষে ১০,০০০ ভিউ হতে হবে,

২।চ্যানেলে অবশ্যই ৪,০০০ ঘণ্টা Watch-Time থাকতে হবে,

৩। চ্যানেলে কমপক্ষে ১,০০০ Subscribers থাকতে হবে

৪।৪র্থ শর্ত হল অনেকটা এরকম যে উপরের ৩টি শর্ত অবশ্যই চ্যানেলটি খোলার ১ বছরের মধ্যে পূরণ করতে হবে।

এ ৪টি শর্ত পূরণ না করা পর্যন্ত চ্যানেলটি মনিটাইজ করা যাবেনা। তাছাড়া যদি চ্যানেলটি খোলার ১ বছরের মধ্যে ১ম ৩টি শর্ত পূরণ করা না যায় তাহলে চ্যানেলটি আর কখনো মনিটাইজ করা যাবেনা।

 

ইউটিউব এ এ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট এপ্ররুভ করার প্রক্রিয়া:

১. প্রথমেই একটি Gmail Account লাগবে। সঠিক ইনফর্মেশন দিয়ে একটি Gmail Account তৈরি করতে হবে। ইউটিউব.কম গেলে জিমেইল এর নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হবে। এখন প্রথম কাজ শেষ।

২.Click On Your Avatar>Creator Studio>Channel>Advanced এ যেতে হবে। Country বাংলাদেশ থেকে ইউনাইটেড স্টেট্‌স এ পরিবর্তন করতে হবে।

৩. Channel>Status and Features এ চ্যানেল ভেরিফাই করতে হবে।

৩. Enable Monetization. স্টেপসগুলো অবলম্বন করে Enable করতে হবে।

৪. ১৫ মিনিটের দীর্ঘ ভিডিও আপলোড করার জন্য Longer Videos Enable করে নিতে হবে।

৫. Channel>Monetization>How will be i get paid এ ক্লিক করতে হবে। স্টেপসগুলো অবলম্বন করতে হবে এবং সঠিকভাবে ব্যক্তিগত ইনফর্মেশন দিয়ে এ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে।

এ্যাডসেন্স এ্যাপ্লাই করার আগে ২-৩টা Unique ভিডিও আপলোড করে নিলে এপ্ররুভ পেতে কোন সমস্যা হবে না।


ইউটিউব মনিটাইজেশন ২০২০,ইউটিউব মনিটাইজেশন,ইউটিউব মনিটাইজেশন কিইউটিউব মনিটাইজেশন 2020,youtube মনিটাইজেশন,বাংলাদেশ থেকে ইউটিউব মনিটাইজেশন,ইউটিউব মনিটাইজেশন করার উপায়,bdnextweb.com,

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close