ইলমের গুরুত্ব ও ফযীলত

হযরত মুআবিআ রা. বর্ণনা করেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,আল্লাহ যে ব্যক্তির কল্যান সাধনের ইচ্ছা পোষণ করেন,তাকে তার দ্বীনের ব্যাপারে গভীর বুঝ দান করেন।(বুখারী হা,নং.৭১,মুসলিম হা,নং,১০৩৭) 

হযরত আবু হুরাইরা রা। থেকে বর্ণিত আছে যে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,যে ব্যক্তি ইলম অন্বেষণ করার জন্য কোন পন্থা অবলম্বন করে,এর দরূন আল্লাহ তার জান্নাতের পথ সুগম করে দেন।(মুসলিম হা,নং,২৬৯৯) 

হযরত আবু হুরাইরা রা, থেকে বর্ণিত আছে যে,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,মানুষ যখন মৃত্যুবরণ করে তখন তার তিনটি আমল ছাড়া সব আমল বন্ধ হয়ে যায়- সদকায়ে জারিয়া ,উপকারী ইলম এবং নেক সন্তান যে তার জন্য দু,আ করে। (মুসলিম হা,নং,১৬৩১) 

হযরত আবু হুরাইরা রা. বর্ণনা করেন,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,কোন ব্যক্তিকে দীনি ইলম সম্পর্কে জিঙ্গেস করা হলে সে যদি তা জেনে গোপন করে,তাহলে কিয়ামতের দিন তাকে আগুনের লাগাম পরানো হবে। (আবু দাঊদ হা,নং,৩৬৫৩,তিরমিযী  হা,নং,২৬৪৯)  

হযরত আবু হুরাইরা রা. বর্ণনা করেন,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,যে ব্যক্তি এমন ঙ্গান অর্জন করল যার মাধ্যমে আল্লাহর সন্তষ্টি অর্জন করা যায়,অথচ সে তা কেবল দুনিয়ার সামগ্রী অর্জনের জন্য শিক্ষা করল,সে কিয়ামতের দিন জান্নাতের সুগন্ধি পর্যন্ত পাবে না।( আবু দাঊদ হা,নং,৩৬৫৯)    

       

Leave a Comment