কনুইয়ের কালো দাগ দূর করার উপায়

 

কনুইয়ের কালো দাগ দূর করার উপায়

শসার ব্যবহারঃ

শসা মাধ্যমে হাঁটু এবং কনুই থেকে কাল দাগ মুক্তি পাওয়ার সবচেয়ে কার্যকর উপায় গুলির মধ্যে একটি। এটি ত্বকের মৃত কোষগুলি সরিয়ে দেয় এবং আপনার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ রাখে। শসাতে উপস্থিত ভিটামিন এ এবং সি ত্বককে সুন্দর ও সতেজ রাখে।

আপনার কনুই এবং হাঁটুর উপর ১৫ মিনিটের জন্য ধীরে ধীরে শসা এর ঘন টুকরা ঘষুন।
এটি আরও ০৫ মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং তারপর এটি ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।
আপনি সম পরিমাণে শসার রস এবং লেবুর রস মিশ্রিত করতে পারেন। আপনার হাঁটু, কনুই এবং আন্ডার আর্মসে মিশ্রণটি প্রয়োগ করুন। এটি ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং এটি ধুয়ে ফেলুন। এটি প্রতিদিন ব্যাবহার করুন।

লেবুর ব্যবহারঃ

লেবু একটি ত্বক আলোকিত করার একটি দুর্দান্ত উপাদান। এটি অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এবং ভিটামিন সি দিয়ে সজ্জিত যা ত্বকের পুনর্জন্মকে উত্সাহ দেয় এবং ত্বকের বর্ণকে উন্নত করে। বেকিং সোডা ত্বকের অন্ধকার অঞ্চল সাদা করার জন্য একটি মৃদু এবং কার্যকর ক্লিনজার হিসাবে কাজ করে।

একটি লেবু নিন এবং এটি ২ অংশে কাটা।লেবুর উপরে ১ চা চামচ বেকিং সোডা ছিটিয়ে দিন।আপনার কনুই এবং হাঁটু ১ মিনিটের জন্য ঘষুন।এটি ১৫ মিনিটের জন্য বসতে দিন এবং তারপরে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।কাঙ্ক্ষিত প্রভাবের জন্য প্রতি ২ দিনে একবার ব্যাবহার করুন।

অ্যালোভেরার ব্যবহারঃ

অ্যালোভেরায় এমন উপাদান রয়েছে যা আপনার ত্বককে ময়শ্চারাইজ করতে এবং ত্বকের অসম স্বভাব উন্নত করতে সহায়তা করে। এটিতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্যও রয়েছে। অ্যালোভেরা এবং দুধের সংমিশ্রণটি আপনার ত্বককে প্রাকৃতিকভাবে হালকা করার একটি সহজ এবং দরকারী উপায়।

সমান পরিমাণে দুধ এবং অ্যালোভেরার জেল মিশিয়ে আপনার ত্বকে মিশ্রণটি প্রয়োগ করুন।রাতারাতি রেখে দিন এবং পরের দিন সকালে ধুয়ে ফেলুন।বিকল্পভাবে, আপনি অ্যালোভেরা পাতা থেকে জেলটি বের করতে পারেন এবং এটি আপনার হাঁটু এবং কনুইতে প্রয়োগ করতে পারেন। এটি ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং তারপরে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

আলুর ব্যবহারঃ

আলুতে ক্যাটাওলাস এনজাইম সমৃদ্ধ যা প্রাকৃতিকভাবে আপনার ত্বকের স্বর হালকা করতে পারে। আলুর দৈনিক ব্যবহার আপনার ত্বককে নরম করবে এবং কালো থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করবে।

আলু কুচি করে নিন, রস বার করে নিন এবং এটি আপনার ত্বকে লাগান।এটি আপনার ত্বকে ১৫ মিনিটের জন্য রেখে দিন, তারপরে এটি জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।ময়েশ্চারাইজার লাগান।আপনি আপনার কনুই এবং হাঁটুতে টুকরো টুকরো করে কাটা আলু দিয়ে প্রায় ১০ থেকে ১৫ মিনিটের জন্য ঘষতে পারেন এবং তারপরে ধুয়ে ফেলতে পারেন।

হলুদের ব্যবহারঃ

আপনার হাঁটু এবং কনুই থেকে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই হলুদ হ’ল সবচেয়ে প্রাকৃতিক প্রতিকার। এতে কার্কিউমিন নামে একটি যৌগ রয়েছে যা অন্ধকার জটিলতার জন্য দায়ী মেলানিনের অতিরিক্ত উত্পাদন হ্রাস এবং নিয়ন্ত্রণ করে।

১ চা চামচ দুধের সাথে কিছুটা হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে নিন।এটি হাঁটু এবং কনুইতে প্রয়োগ করুন।কয়েক মিনিট ম্যাসাজ করুন এবং এটি প্রাকৃতিকভাবে শুকিয়ে যেতে দিন।হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।আরও ভাল প্রভাবের জন্য আপনি মিশ্রণটিতে কিছুটা মধু যোগ করতে পারেন।

নারকেল তেলের ব্যবহারঃ

নারকেল তেলতে প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ভিটামিন ই রয়েছে যা অন্ধকার এবং ক্ষতিগ্রস্থ ত্বকের মেরামত করতে সহায়তা করে।

প্রতিটি ঝরনা বা স্নানের পরে আক্রান্ত স্থানে নারকেল তেল প্রয়োগ করুন।তেল ত্বকে শোষিত না হওয়া পর্যন্ত আলতোভাবে ম্যাসাজ করুন ২থেকে ৩ বার । আরাও ভালো হয় আপনি যদি ১/২ চামচ তাজা লেবুর রস ১ চা চামচ নারকেল তেল যোগ করতে পারেন এবং কয়েক মিনিটের জন্য আপনার হাঁটু এবং কনুইতে আলতোভাবে ম্যাসাজ করতে পারেন।

চিনি এবং জলপাই তেল বা ওলিভ ওয়েল ব্যবহারঃ

চিনি ও  প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসাবে কাজ করে।চিনি ,জলপাই তেল ও লেবুর সংমিশ্রণে এটি আপনার ত্বকে আশ্চর্য কাজ করতে পারে।২টেবিল চামচ মধু, আধা লেবুর রস এবং ১ চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন।কাল স্থানে ভালো ভাবে মিশ্রণটি প্রয়োগ করুন।এটি ২০ থেকে ৩০ মিনিট ধরে বসে ধুয়ে ফেলতে দিন।মধু দুধ এবং অ্যালোভেরার সাথেও ভাল কাজ করে। আপনি ১ চামচ মধুর সাথে ১ চামচ দুধ এবং ১ চামচ অ্যালোভেরা জেল একত্রিত করতে পারেন। আপনার ত্বকে পেস্টটি প্রয়োগ করুন, ১৫ মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

চিনি এবং অলিভ অয়েল থেকে তৈরি একটি বাড়িতে স্ক্রাব পুষ্টি, হাইড্রেট এবং আপনার ত্বক থেকে মৃত কোষগুলি সরিয়ে দেবে।

ভিনেগার এবং দই ব্যবহারঃ

দইতে ভিনেগার এবং ল্যাকটিক অ্যাসিডে সমৃদ্ধ এসিটিক অ্যাসিড আপনার হাঁটু এবং কনুই পরিষ্কার করতে এবং আলোকিত ত্বক প্রকাশ করতে সহায়তা করবে।

১ টেবিল চামচ দই এবং ১ টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার মেশান।
এই মিশ্রণটি আপনার ত্বকে লাগান।
এটি 15 মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং এটি গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
এই পদ্ধতিটি সপ্তাহে ৩থেকে ৪ বার ব্যাবহার করুন।
আপনার ত্বককে হালকা করার আরেকটি সহজ উপায় হ’ল অ্যাপল সিডার ভিনেগার কিছুটা জল মিশিয়ে আপনার কনুই এবং হাঁটুর সাথে তুলোর বল দিয়ে প্রয়োগ করুন। এটি ১৫ মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং এটি ধুয়ে ফেলুন।

আপনি কি অন্য কোনও কার্যকর ত্বক হালকা টিপস জানেন? কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাদের সাথে নির্দ্বিধায় সেগুলি প্রকাশ করুন এবং আরো তথ্য জানতে ক্লিক করুন এখানে

Leave a Comment