করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের উপায়

করোনা ভাইরাস হ’ল এক ধরণের ক্ষুদ্র জৈব কণা বা মাইক্রো অর্গানিজম যা কেবল জীবন্ত কোষের অভ্যন্তরেই বংশবৃদ্ধি করতে পারে। তারা অ্যাকারিওটা ক্লাসের সদস্য এবং মাইক্রোস্কোপিক এবং অসেলুলার হয়। এরা হ’ল সহজ জীব।  অতএব, করোনা ভাইরাসটি এক ধরণের জীব হিসাবে বিবেচিত হয়।করোনাভাইরাস একটি সংক্রামক ভাইরাস যা এর আগে কখনও মানুষের মধ্যে ছড়ায়নি। এই ভাইরাসজনিত কারণে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ১৬ লক্ষের ও বেশি। বিশ্বব্যাপী শনাক্তের সংখ্যা সাড়ে ৮ কোটির বেশি।

এই ভাইরাসটির আর একটি নাম 2019 – এনসিওভি বা নভেল করোনভাইরাস। এটি এক ধরণের করোনভাইরাস। করোনাভাইরাসের অনেক প্রজাতি রয়েছে তবে কেবল ছয়টি প্রজাতিই মানুষে সংক্রমণ করতে পারে। তবে নতুন ধরণের ভাইরাসের কারণে এখন থেকে এর সংখ্যাটি হবে সাত টি। নতুন এই রোগটিকে প্রথমদিকে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়েছে যেমনঃ চায়না ভাইরাস, করোনাভাইরাস, ২০১৯ এনকভ, নতুন ভাইরাস, রহস্য ভাইরাস ইত্যাদি। এই ভাইরাস টি বিভিন্নদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এটি একটি প্রাণ ঘাতক রোগ এবং খুব দ্রুত মানুষের মাঝে ছড়াই। কিন্তু আপনি কিছু নিয়ম মেনে চললে আপনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারবেন। তাই চলুন জেনে আসি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের উপায় সম্পর্কে কিছু তথ্য।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের উপায়

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের উপায়

বর্তমান পর্যন্ত করোনাভাইরাসের কোনো চিকিৎসা আবিষ্কৃত হয়নি। বর্তমান সারা বিশ্বে এই ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। সাধারণ সতর্কতা অবলম্বন করে আপনি এই ভাইরাসটির সংক্রমণ ও বিস্তারের ঝুঁকি কমিয়ে আনতে পারেন। এবং একটু সচেতন হলে ও কিছু নিয়ম মেনে চললে এই ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে অনেকাংশেই রেহাই পাওয়া সম্ভব।

১) বাইরে বের হওয়ার সময় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

২) বাইরে পরা ময়লা কাপড় চোপড় দ্রুত ধুয়ে ফেলতে হছোপড়

৩) বাইরে থেকে ফিরে এসে সাবান দিয়ে অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধুতে হবে।

৪) কিছু খাওয়া কিংবা রান্না করার আগে হাত ভালো করে ধুতে হবে।

৫) চোখ, নাক ও মুখের সংস্পর্শ থেকে যত দূর সম্ভব হাত সরিয়ে রাখতে হবে।

৬) সর্দি-কাশি, জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তির যত সম্ভব কাছাকাছি যাওয়া যাবে না।

৭) অসুস্থ জীবজন্তু থেকে দূরে থাকতে হবে।

৮) বাজারের মতো সকল জায়গা এড়িয়ে চলতে হবে।

৯) কোনো পশু স্পর্শ করার পর ভালোভাবে হাত ধুতে হবে।

১০) অপুষ্টি, অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, স্টেরয়েডজাতীয় ঔষধ নেন এবং যাঁদের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা কম, তাঁদের বেশি সতর্ক থাকতে হবে।

১১) বিভিন্ন ফলের রস এবং পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে।

১২) সকল ডিম কিংবা মাংস রান্নার সময় ভালো করে সেদ্ধ করতে হবে।

১৩) উচ্চ তাপমাত্রায় ও রোদে ভালোভাবে কাপড়, তোয়ালে, চাদর ইত্যাদি শুকিয়ে নিতে হবে।

১৪) যতটা সম্ভব গণপরিবহন এড়িয়ে চলতে হবে।


করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের উপায়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করার উপায়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় রচনা, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় কি কি, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় কী, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়, করোনা ভাইরাস ও প্রতিরোধে আমাদের করণীয়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা অনুচ্ছেদ, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে করণীয়, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সচেতনতা,

Leave a Reply

Your email address will not be published.