ক্রেডিট কার্ড কাকে বলে? ক্রেডিট কার্ড কত প্রকার কি কি ?

ক্রেডিট কার্ড হল একটি প্লাস্টিক কার্ড যা একটি বিশেষ পেমেন্ট সিস্টেমের অংশ হিসাবে ব্যবহৃত হয় যা সেই পেমেন্ট সিস্টেমের ব্যবহারকারীদের জন্য জারি করা হয়।  এই কার্ডগুলির ক্যারিয়াররা পণ্য এবং পরিষেবা ক্রয় করতে পারে এবং অর্থ প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিতে পারে। স্থানীয় ব্যাংক বা ক্রেডিট ইউনিয়ন সাধারণত ভোক্তাদের এই কার্ডগুলি ইস্যু করে।  এর আরেক নাম পেমেন্ট কার্ড।

ক্রেডিট কার্ড কাকে বলে

আধুনিক বিশ্বে ক্রেডিট কার্ডকে বলা হয় প্লাস্টিক মানি এর আরেক নাম পেমেন্ট কার্ড। এর বৈশিষ্ট্য হলো হাতে নগদ টাকা না থাকলেও এই কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করা যায়। ক্রেডিট কার্ড বলতে আমরা বুঝি সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের জারি করা এটিএম কার্ড যাতে নির্দিষ্ট শর্ত সাপেক্ষে নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ একজন ব্যক্তিকে ধার দেওয়া হয়। এবং সহজভাবে, ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ঋণ নেয় এবং ব্যবসা বা অন্য কোন প্রয়োজনে ব্যয় করে, এই শর্ত সাপেক্ষে যে ব্যাংক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ সুদ নেয়। এক কথায় একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ পর্যন্ত অর্থ ব্যবহার বা খরচ করা বা উত্তোলন করতে পারেন একজন গ্রাহক তার ক্রেডিট কার্ড দিয়ে। ক্রেডিট কার্ডগুলি সাধারণত এমন পণ্য বা পরিষেবা কেনার সময় ব্যবহার করা হয়।

ক্রেডিট কার্ড কত প্রকার কি কি

গ্রাহকদের সুবিধার জন্য বাংলাদেশের প্রায় সব ব্যাংকেই ক্রেডিট কার্ড আছে। প্রতিটি ব্যাংক গ্রাহকদের চাহিদা এবং ব্যাংকের নীতি অনুযায়ী আলাদা ক্রেডিট কার্ড নিয়ে আসে। কিছু ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে আসি।

বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহঃ

ব্র্যাক ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ-

  • ইনফিনিট ক্রেডিট কার্ড।
  • গোল্ড ক্রেডিট কার্ড।
  • ক্লাসিক ক্রেডিট কার্ড।
  • সিগনেচার ক্রেডিট কার্ড।
  • প্ল্যাটিনাম ক্রেডিট কার্ড।

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ-

  • ভিসা গোল্ড ক্রেডিট কার্ড।
  • ভিসা গোল্ড ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড।
  • ভিসা প্লাটিনাম ক্রেডিট কার্ড।
  • ভিসা ক্লাসিক লোকাল ক্রেডিট কার্ড।
  • ভিসা ক্লাসিক ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড।
  • মাস্টার কার্ড ক্লাসিক লোকাল ক্রেডিট কার্ড।

স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ-

  • ভিসা সিগনেচার ক্রেডিট কার্ড।
  • ভিসা সিলভার ক্লাসিক ক্রেডিট কার্ড।
  • প্লাটিনাম ভিসা/ মাস্টার কার্ড ক্রেডিট কার্ড।
  • স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড গ্রামিনফোন ক্রেডিট কার্ড।
  • সুপার ভেল্যু টাইটানিয়াম ক্রেডিট কার্ড।
  • গোল্ড ভিসা/ মাস্টার ক্রার্ড ক্রেডিট কার্ড।

সিটি ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ-

  • সিটি আলো অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস ক্রেডিট কার্ড।
  • অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস গ্রীণ ব্লু ক্রেডিট কার্ড।
  • অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস প্লাটিনাম ক্রেডিট কার্ড।
  • অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস গোল্ড ক্রেডিট কার্ড।

ইস্টার্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ-

  • ইবিএল ভিসা গোল্ড ক্রেডিট কার্ড।
  • ইবিএল ভিসা ক্লাসিক ক্রেডিট কার্ড।
  • ইবিএল ভিসা সিগনেচার লাইট ক্রেডিট কার্ড।
  • ইবিএল ভিসা প্লাটিনাম ক্রেডিট কার্ড।
  • ইবিএল ভিসা সিগনেচার আসসি-শিল্ড ক্রেডিট কার্ড।
  • ইবিএল ভিসা উইমেন প্লাটিনাম ক্রেডিট কার্ড।

ক্রেডিট কার্ডের সুবিধাগুলোঃ

  • দ্রুত লেনদেন (অন্যের কাছ থেকে টাকা ধার না করে কার্ড ব্যবহার করে হাতে থাকা অর্থের চেয়ে বেশি দামে পণ্য ক্রয়ের সুবিধা)।
  • পুরস্কার পয়েন্ট (বিশেষ করে বিমান ভ্রমণের ক্ষেত্রে এটি খুবই আকর্ষণীয়, যে সুবিধা ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন করলে পাওয়া যায়)।
  • নগদ অর্থ বহনের ঝুঁকি থেকে মুক্তি।
  • অধিকতর নিরাপদ (প্রচলিত ডেবিট কার্ডের চেয়ে ক্রেডিট কার্ডের সুরক্ষা অনেক বেশি)।

 

ক্রেডিট কার্ড কি, ক্রেডিট কার্ড কাকে বলে, ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা, ক্রেডিট কার্ডের ঋণ, ক্রেডিট কার্ড কী, ক্রেডিট কার্ড সুবিধা, ক্রেডিট কার্ড এর সুবিধা, ক্রেডিট কার্ড এর কাজ কি, ক্রেডিট কার্ড কত প্রকার, ক্রেডিট কার্ড প্রকল্প, ক্রেডিট কার্ড বলতে কি বুঝায়, ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের সুবিধা, ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা, বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সমূহ, ক্রেডিট কার্ড কত প্রকার কি কি,

Leave a Comment