ক্যারিয়ার গাইডলাইনব্যবসার আইডিয়া

ক্ষুদ্র ব্যবসা করতে চাই। সাজেশন দিন- বিসনেস আইডিয়া

ব্যবসা করতে গেলে অনেক টাকার প্রয়োজন ,টাকা না হলে ব্যবসা করা যায় না এই ভ্রান্ত ধারনা থেকে  সরে আসার সময় এসে গেছে ।সল্প পরিমান টাকা দিয়েও  এখন ব্যবসা করা যায় যদি সঠিক পরিকল্পনা মত ব্যবসা করা যায়। উদ্ভাবনী, দক্ষতা, শ্রম আর সৃজনশীলতা দিয়ে নেহাতই অল্প টাকায় ব্যবসা শুরু করা সম্ভব।

আজ এরকমই কিছু অল্প পুঁজিতে লাভজনক ছোট ব্যবসার আইডিয়া দেব আমরা। এই ছোট ব্যবসাগুলির মধ্যে থেকে নিজের পছন্দ, আগ্রহ ও দক্ষতা অনুযায়ী কোনও একটি বেছে নিয়ে আপনিও কম টাকায় লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

ক্ষুদ্র ব্যবসা করতে চাই

 ১।খাবারের হোমডেলিভারিঃ

ভোজনরসিক বাঙালির রসনা তৃপ্ত করতে পারলে ব্যবসার অভাব হয় না। অল্প টাকায় ব্যবসা শুরু করতে হলে নিজের বাড়ি থেকেই ব্যবসা করুন। প্রয়োজন একটা রান্নাঘর, ভাল রান্নার কারিগর আর সুস্বাদু রেসিপি।

বর্তমানের ফুড পান্ডা ও অন্যান্য হোম ডেলিভারির  যুগে খাবার পৌঁছে দেওয়া নিয়েও আর ভাবতে হবে না আপনাকে। আপনার কাজ শুধু খাবার অর্ডার নেওয়া আর সেই মতো খাবার প্রস্তুত করা। তবে মনে রাখতে হবে  বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে হাজারো খাবারের দোকান, তাই তাদের সাথে পাল্লা দিতে খাবারের গুণমান ও স্বাদের দিকে রাখতে হবে কড়া নজর আর নজর দিতে হবে অভিনব নতুন রেসিপিতে। দেশ বিদেশের নানা রেসিপি থেকে পেতে পারেন আইডিয়া।

food panda

 

২। ট্রাভেল আর ট্যুরিজমঃ

ভোজনরসিক হওয়ার পাশাপাশি বাঙালি ভ্রমণপিপাসুও বটে, ফলে মানুষকে বেড়াতে নিয়ে যাওয়া কম খরচে লাভের ব্যবসা।

অল্প টাকায় ব্যবসার কথা ভাবলে এটিই হতে পারে আপনার জন্য  সহজ উপায়। এই ব্যবসা শুরু করতে বিনিয়োগ বিশেষ লাগে না, লাগে শ্রম, অধ্যাবসায়, আর বেড়ানোর প্যাশন। টিকিট কাটা, হোটেল বুকিং, বেড়ানোর পরিকল্পনা তৈরি ইত্যাদি ঝক্কি এড়াতে অনেকই ভরসা করেন বিভিন্ন এজেন্সির ওপর। সন্তোষজনক অভিজ্ঞতা হলে তাঁরাই ফিরে ফিরে আসেন প্রতিবছর।

এই ব্যবসা শুরু করতে প্রথমেই ঠিক করে নিতে হবে বেড়ানোর জায়গা। কীধরণের জায়গায় নিয়ে যেতে চান, কোন ধরণের হোটেলে রাখবেন পরিকল্পনা করে নিতে হবে গোটাটা। বিভিন্ন  সামাজিক অর্থনৈতিক অবস্থার মানুষের চাহিদা বিভিন্নরকম, আপনি কাদের পরিষেবা দিতে চান ঠিক করে নিতে হবে সেই বিষয়।

এই ব্যবসায় বিনা বিনিয়োগে আয় করা সম্ভব। নতুন নতুন জায়গা খুঁজে বের করলে ব্যবসা বাড়ার সম্ভাবনা বেশি, পাশাপাশিই জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট স্পটগুলোকেও রাখতে পারেন তালিকায়। সেইসব জায়গাগুলোর হোটেলের সঙ্গে কথা বলে ঠিক করে নিন কত শতাংশ ছাড় বা এজেন্ট কমিশন দিতে প্রস্তুত তারা।

travel-agency

৩। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টঃ

ছোট বড় বিভিন্ন সংস্থা তাদের নানা অনুষ্ঠান আয়োজনের দায়িত্ব দেয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলিকে। অত্যন্ত অল্প টাকায় ব্যবসা শুরু করা সম্ভব।এই ব্যবসার জন্য প্রয়োজন দক্ষতা, পরিশ্রম, প্রত্যুত্পন্নমতিত্ব আর যোগাযোগ তৈরির ক্ষমতা। কাজের মাধ্যমেই নিজের কোম্পানিকে নির্ভরযোগ্য প্রমাণ করতে হবে, তাহলেই মিলবে নতুন কাজ।

শুরু করুন ছোট ইভেন্ট দিয়ে পরে ধীরে ধীরে নতুন নতুন যোগাযোগ তৈরি করে ব্যবসা বাড়ান। কোন ধরণের ইভেন্ট আয়োজন করতে আপনি সবথেকে বেশি সাচ্ছন্দবোধ করেন তা চিহ্নিত করুন এবং সেই অনুযায়ী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করুন। অভিজ্ঞতা ও যোগাযোগ বাড়ার সাথে সাথে নতুন ধরণের ইভেন্টে হাত দিন।

Event Management

৪। হস্তশিল্পের ব্যবসাঃ

বাংলাদেশে রয়েছে হস্তশিল্পের বিপুল সম্ভার।  মাটির পুতুল, মাদুর,  শীতলপাটি সহ হাজারো রকমের হস্তশিল্প। দেশ বিদেশের বাজারে চাহিদাও রয়েছে যথেষ্ট। নিজেদের দক্ষতা আর সৃজনীকে কাজে লাগিয়ে নানা নতুন ধরণের পণ্যও তৈরি করছেন এই সব গ্রামীণ শিল্পীরা। এই সমস্ত হস্তশিল্প নিয়ে অনলাইন বিজনেস করে নিয়মিত লাভ করা সম্ভব।

অল্পটাকায় ব্যবসা শুরু করতে হলে নানা ধরণের হস্তশিল্পের সামগ্রী সংগ্রহ করুন শিল্পীদের থেকে। আপনি নিজের মতো ডিজাইন দিয়েও জিনিস বানিয়ে নিতে পারেন।

Handicraft-sector

৫।বুটিক ও অনলাইনে পোশাক বিক্রিঃ

অন্য সকলে যে ডিজাইনের পোশাক পরছে তার বাইরে গিয়ে নতুন ডিজাইনের পোশাক কিনতে পছন্দ করেন অনেক ক্রেতা। তার জন্য খানিক বেশি দাম দিতেও রাজি থাকেন এই সমস্ত ক্রেতা। এই ক্রেতাদের চাহিদা পূরণ করতেই তৈরি হচ্ছে একাধিক বুটিক। ক্রেতার পছন্দ বুঝে মনমতো পোশাক তৈরিই চ্যালেঞ্জ এই ব্যবসার। দোকানঘর ভাড়া করা সম্ভব নাহলে অনলাইনেও বিক্রি করতে পারেন এই পোশাক।

বুটিক ব্যবসা

৬।বেকারিঃ

ঘরে বানানো তাজা কেক, পেস্ট্রি আর কুকিস্-এর চাহিদা রয়েছে বাজারে। কনফেকশনারির দোকানের বাইরে একেবারের ঘরের ওভেনে বানানো বেকারি সামগ্রীর স্বাদ আলাদা। আপনি যদি ভাল কেক বানাতে পারেন, নতুন নতুন স্বাদের কুকিস্ বানান, সাজাতে জানেন জন্মদিন বা বিবাহবার্ষিকীর কেক তাহলে আপনার এই শখকেই ব্যবসায় পরিণত করা সম্ভব। হবে কম খরচে লাভের ব্যবসা।

বিভিন্ন উৎসব অনুষ্ঠানের জন্য বানান কাস্টমাইজড্ কেক। ইন্টারনেটে করতে পারেন এই ব্যবসা, ক্রেতার ঘরে সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করুন।

বেকারি

৭।ইন্টিরিয়র ডেকরেশনঃ

অফিস হোক বা সুসজ্জিত ফ্ল্যাট, অন্দর সজ্জার প্রয়োজন সর্বত্র। ক্রেতার রুচিবোধ অনুযায়ী ঘর সাজাতে পারলে আর প্রয়োজনীয় দক্ষতা থাকলে অল্প টাকায় এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এ বিষয়ে কোর্স করা থাকলে কাজ পেতে সুবিধা হবে, তবে না থাকলেও দক্ষতা ও উদ্ভাবনীর জোরে ক্রেতাকে খুশি করতে পারলে কাজের অভাব হবে না। অফিস, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত অন্দর সজ্জার প্রয়োজন পরে, অনেক ক্ষেত্রেই কাজ দেওয়া হয় টেন্ডার ডেকে। উপযুক্ত প্রস্তাব দিলে ডাক পাবেন কাজের।

interior design

৮।কাগজের ব্যাগ তৈরিঃ

পরিবেশ সচেতনতা বৃদ্ধির সাথে সাথেই বাড়ছে কাগজের ব্যাগের ব্যবহার। ক্ষতিকর প্রভাবের জন্য আমাদের দেশেই অনেক জায়গায় প্লাস্টিকের ব্যবহার নিষিদ্ধ। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গেও অনেক দোকানই প্লাস্টিকের বদলে কাগজের ব্যাগ ব্যবহারই বেশি পছন্দ করছে। এই ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে কাগজের ব্যাগ তৈরি করে সরবরাহ করুন।

কাগজের ব্যাগ

৯।গুঁড়ো মশলা তৈরি ও প্যাকেটজাতকরণ

উন্নতমানের গুঁড়ো মশলা তৈরি করে তা প্যাকেট করে বিক্রি করতে পারলে ভাল লাভ হতে পারে। আজকের ব্যস্ততার যুগে আর কেউই মশলা বাটার ঝামেলা রাখতে চায় না, তাই প্যাকেটজাত মশলার চাহিদা প্রচুর।

মশলা তৈরির কারখানার জন্য খুব বেশি জায়গা না হলেও চলবে। একটি ছোট্ট ঘর থেকেই শুরু করতে পারেন ব্যবসা। কিনতে হবে মশলা গুঁড়ো করার মেশিন, এগুলোর নাম পালভারাইজার মেশিন।

hqdefault

১০।বই বাঁধানো
ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্পকারখানা, অফিস-আদালত, ব্যাংক সবখানেই হিসাবের খাতাসহ নানান ধরনের বই ও প্রকাশনা সামগ্রীর প্রয়োজন হয়। এসব প্রকাশনাগুলোকে সুন্দর ও মজবুত করার জন্য বাঁধাই করার প্রয়োজন হয়। বই বাঁধাই না করলে এটি সহজে ছিঁড়ে যায়। মোটামুটি সব মৌসুমেই বই ও খাতা বাঁধানোর কাজ চলে। বই বাঁধানো শিখে যে কোনো ব্যক্তি সহজে এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

বই বাধানো

আপনি যদি অল্প পুজির ব্যবসা করতে চান তাহলে উপরের যেকোনো একটি বেছে নিতে পারেন।তবে ব্যবসা করতে নামার আগে ওই ব্যবসা সম্পর্কে ভালোভাবে জানুন তারপর নিজের ব্যবসা শুরু করুন।অল্প পুঁজির ব্যবসা


অল্প পুঁজির ব্যবসা,সল্প পুজিতে ব্যবসা,অল্প পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা,অল্প পুঁজিতে ছোট ব্যবসা,অল্প পুঁজির ব্যবসা আইডিয়া,
অল্প পুঁজির ব্যবসা কি আছে,অল্প পুঁজির ব্যবসার আইডিয়া,অল্প পুজির ব্যবসা,i want to start a small business but have no money,best business to start with little money,how to start a business with no capital,best business ideas to make money,list of business ideas,hot new business ideas,businesses that make money right away,

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close