চাকরির আবেদনপত্র বা কভার লেটার কি?? 
আপনার পুরো সিভির একটা সংক্ষিপ্তরূপ কিংবা আপনি কোন পদে আবেদন করছেন এবং এইচআর ম্যানেজারকে আপনার সিভিটি দেখতে বাধ্য বা আকৃষ্ট করার জন্য আধুনিক যুগের অন্যতম হাতিয়ার হলো “চাকরির আবেদনপত্র” বা  ‘কভার লেটার’। একটি চাকরিতে আবেদনের জন্য সিভি বা জীবনবৃত্তান্ত যেমন গুরুত্বপূর্ণ, ঠিক তেমনি কভার লেটারও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। একটি সঠিকভাবে পূরণকৃত সিভি যেভাবে আপনাকে উপস্থাপন করে ঠিক তেমনি ভাবে সিভির সাথে একটি কভার লেটার করতে পারে আপনাকে আরো পারফেক্ট। একটি প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানি আপনাকে জানতে পারবে সিভির মাধ্যমে তবে কভার লেটার থেকে নিজেকে আরও সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার বিশেষ কিছু কৌশল আছে।

চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

কভার লেটার লেখার আগে করণীয়
যে প্রতিষ্ঠান বা  কোম্পানিতে আবেদন করবেন আগে ঐ প্রতিষ্ঠানের  কাজ, কর্মকর্তার-কর্মচারীবৃন্দের কর্মকাণ্ড, চাকরি প্রত্যাশী ও প্রতিযোগিদের ধরন ইত্যাদি সম্পর্কে ভালোভাবে জানুন।  অবশ্যই কভার লেটার লিখতে বা তৈরি করতে বসার আগে চাকরির বিজ্ঞাপনের বর্ণনা ভালোভাবে পড়ে নিবেন। ওখানকার টার্মগুলোই লেটারে ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।

কভার লেটারে যেসব বিষয় থাকবে

  • কভার লেটার লেখার আগে আপনি যে  প্রতিষ্ঠানটিতে  সিভি দিচ্ছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন। শুরুতেই তারিখ, কার নিকট লিখছেন ,প্রতিষ্ঠানের  নাম ,ঠিকানা ইত্যাদি কভার লেটার এর বাম পাশে ধারাবাহিক ভাবে লিখবেন।
  • কোন পজিশন এর জন্য আপনি এপ্লাই করেছেন সেটি সাবজেক্ট এ উল্লেখ করবেন।
  • আপনি আপনার কভার লেটার লেখার উদ্দেশ্য টি সুন্দর করে তুলে ধরুন। চাকরির সোর্স আপনি কোন পত্রিকা বা অনলাইন পোর্টাল থেকে পেয়েছেন তাও উল্লেখ করুন।
  • এরপর আপনি কেন এ চাকরির জন্য যথার্থ তা লিখুন সংক্ষেপে। এ অংশে আপনার দক্ষতা ও শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কে লিখুন।
  • আপনি যে কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানে চাকরির সিভি দিতে বা চাকরি নিতে চাচ্ছেন, সে প্রতিষ্ঠানে চাকরি হলে, আপনি প্রতিষ্ঠানটির জন্য কী কী ভালো সুযোগ-সুবিধা এনে দিতে পারবেন তা সম্পর্কে জানান। যাতে বুঝতে পারা যায় যে, আপনি সত্যি চাকরী টি করতে আগ্রহী এবং আপনাকে দিয়েই কাজটি হবেই হবে।

সর্তকতাঃ

  • সবসময়ে  ছোট করে কভার লেটার লিখতে হবে।
  • সবসময়েই মার্জিত ভাষায় কভার লেটার লিখতে হবে।
  • পাঠকের মনোযোগ আকর্ষণ করার জন্য একটি সুন্দর ও সাবলীল বাক্য দিয়ে শুরু করুন।
  • অনেকে কভার লেটারে লিখে থাকেন যে এই চাকুরিটি পেলে তিনি ধন্য হবেন বা তার চাকুরিটি ভীষণ প্রয়োজন। এটি লেখা উচিত না। কারন নিয়োগকর্তা এসব নয়, বরং জানতে চান কেন আপনি ঐ কাজের জন্য যোগ্য। তাই সেই কথাটিকেই সংক্ষিপ্তাকারে অথচ কার্যকরভাবে তুলে ধরুন।
  • নিজের সম্পর্কে যেমন বানিয়ে কিছু বলার দরকার নেই, তেমনি দুর্বলতা প্রকাশেরও দরকার নেই।
  • কপি পেস্ট করা যাবে না। ।  কপি পেস্ট কভার লেটার সবচেয়ে বেশী রিজেক্ট হয় ।
  • অপ্রয়োজনীয় কোনো  ব্যক্তিগত তথ্য দেবেন না।

আমরা যারা সম্প্রতি গ্র্যাজুয়েট করে বের হয়েছেন অথবা চাকরির আশায় আবেদন করে যাচ্ছেন তাদের অনেকেরই সঠিক আবেদনপত্র লিখতে না জানার কারনে আবেদনপত্র বাতিল হয়ে যেতে পারে । একটি ভালো আবেদনপত্র আপনার সম্পূর্ণ ব্যাক্তিত্ব প্রকাশ করতে পারে । চাকরিদাতা আপনার আবেদনপত্র দেখেই আপনার সম্পর্কে ধারনা করে থাকেন। নিচে বাংলায় সঠিক আবেদনপত্র লিখার কয়েকটি  নমুনা (sample) দেওয়া হল ।

আবেদনপত্র -১

#
১৩, নভেম্বর ২০১৯

মোঃ শরীফ হোসেন
নিরালা আ/এ, খুলনা।

বরাবর
বিজ্ঞাপনদাতা
জিপিও বক্স নং ১২১২,
ঢাকা ।
বিষয়: হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা পদে নিয়োগের জন্য আবেদন।

জনাব
সবিনয় নিবেদন এই যে, গত ১১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে প্রকাশিত দৈনিক সমকাল পত্রিকার মাধ্যমে জানতে পারলাম যে আপনার অধীনে কিছু সংখ্যক “হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা” নিয়োগ দেয়া হবে। আমি উক্ত পদের জন্য একজন আগ্রহী প্রার্থী।

আমি ২০১৮ সালে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় হতে ইংরেজী বিভাগে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী পাশ করেছি। কম্পিউটারে বিশেষ করে এমএস অফিস অপারেশনে আমার দক্ষতা আছে। এছাড়া আমার সম্পর্কে যাবতীয় তথ্যাবলী সংযোজিত জীবন বৃত্তান্তে প্রদান করা হলো।

অতএব, উপরোক্ত যোগ্যতার ভিত্তিতে আমাকে উল্লেখিত পদের জন্য একজন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করে প্রার্থীতা প্রমানের সুযোগ দানের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

জরুরী প্রয়োজনে ০১৭১১******** অথবা youremail@gmail.com এ যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করছি।

বিনীত নিবেদক

আবেদনকারীর স্বাক্ষর ও তারিখ

সংযুক্তির বিবরণ:
১. জীবন বৃত্তান্ত
২. সকল সনদপত্রের সত্যায়িত কপি
৩. ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি

আবেদনপত্র -২

 

তারিখঃ ১৫/১১/২০১৯ ইং
বরাবর,
ব্যবস্থাপনা পরিচালক
খুলনা জেলা স্কুল,খুলনা

বিষয়ঃ “সহকারী শিক্ষক” পদে নিয়োগের জন্য আবেদন।

জনাব,
সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, গত ১লা নভেম্বর  ” দৈনিক প্রথম আলো ” পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানতে পারলাম যে, আপনার বিদ্যালয়ে ২ জন “সহকারী শিক্ষক” পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আমি ‘‘ সহকারী শিক্ষক ’’ পদের একজন প্রার্থী হিসেবে নিম্নে আমার শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী আপনার সদয় বিবেচনার জন্য পেশ করলাম।

প্রার্থীর নাম :  ইয়াসিন সরদার
পিতার নাম : মোঃ শরীফ সরদার
মাতার নাম : মোসাঃ কুসুম খাতুন
বর্তমান ঠিকানা : ১৬, পাইপের মোড়,মিয়াপাড়া ,খুলনা ।
স্থায়ী ঠিকানা :একই।
নিজ জেলা :খুলনা।

জন্ম তারিখ :৫.৫.১৯৯৩ ইং
বয়স (০০.০০.০০ইং) : ২৭ বছর ০৬ মাস ২০ দিন।
জাতীয়তা : বাংলাদেশী।

শিক্ষাগত যোগ্যতা

পরীক্ষার নাম বিভাগ/বিষয় পাশের সাল জিপিএ/শ্রেনী বোর্ড/বিশ্ববিদ্যালয়
এস এস সি মানবিক ২০০৮ ৪.৬৯ যশোর
এইচ এস সি মানবিক ২০১০ ৪.৪০ যশোর
স্নাতক ইংরেজি ২০১৫ ৩.70 খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়
স্নাতকোত্তর ইংরেজি ২০১৭ ৩.৩০ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

 

অতএব, মহোদয় সমীপে বিনীত প্রার্থনা আমার উল্লেখিত তথ্যাবলী বিবেচনা পূর্বক আমাকে উক্ত পদে নিয়োগ দানে আপনার মর্জি হয়।

 

প্রার্থীর নাম :  ইয়াসিন সরদার
পিতার নাম : মোঃ শরীফ সরদার
মাতার নাম : মোসাঃ কুসুম খাতুন
জন্ম তারিখ : ০২৫/০৫/১৯৯৩ খ্রিঃ
জাতীয়তা : বাংলাদেশী
মোবাইলঃ ০১৯১৫৪০০০০০
ইমেইলঃ easin@gmail.com

সংযুক্তিঃ 
১। ছবি ২ কপি।
২।একডেমিক সকল সনদপত্রের সত্যায়ি কপি।
৩। চারিত্রিক সনদপত্র।
৪। নাগরিকত্ব সনদপত্র।
৫। ২০০ টাকার পোস্টাল অর্ডার নং- ………………

আবেদনপত্র -৩

Date: 18 June 2019
To
The Head of Human Resource Division
Prime Bank Limited
119-120, Motijheel C/A
Dhaka-1000
Subject: Application for the post of Senior Assistant Officer (Cash).

Dear Sir,
I am writing concerning a suitable position in Senior Assistant Officer (Cash) with your organization. I have a particular interest in working for your organization and would appreciate being considered as a candidate for employment. I feel I can make a positive contribution to your company.

I have completed Masters of Business Studies at Khulna University, Bangladesh with a Major in Management and EMBA Major in Finance and Banking, University of Rajshahi.

My Curriculum Vitae and photo are attached. I appreciate your consideration of my credentials.

Sincerely
Name of Candidate


চাকরির আবেদনপত্র লেখার নিয়ম,চাকরির আবেদন ফরম লেখার নিয়ম ,সরকারি চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,বাংলায় চাকরির আবেদনপত্র লেখার নিয়ম ,বাংলা চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,চাকরি ছাড়ার আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,চাকরির আবেদনের খাম লেখার নিয়ম ,চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,গ্রামীণ ব্যাংকে চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,চাকরির জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,বাংলায় চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম ,বিডি নেক্সট ওয়েব,bd next web,

5 thoughts on “চাকরির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম-চাকরির মুখোমুখি পর্ব ০২”
  1. আবেদনের সময়, বিজ্ঞাপনদাতার স্থানে কি ‘বিজ্ঞাপনদাতা’ কথাটা লিখব, নাকি বিজ্ঞাপনদাতার নাম ( যেমন – ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি) এভাবে লিখব, জানাবেন

      1. যে প্রতিষ্ঠান এর পক্ষ থেকে বিজ্ঞাপন দেয়া হবে তাদের নাম, ঠিকানা লিখতে হবে।

  2. একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে সহস্তে আবেদন করতে গিয়ে A4 কাগজে আটাতে পারছি না.. তারা কিছু অতিরিক্ত তথ্য চেয়েছেন তাই… প্রশ্ন হল, আমি কি A4 কাগজ দুইটা ইউজ করতে পারব নাকি A4 না নিয়ে এর থেকে বড় পেজ নেব?? ধন্যবাদ…..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *