বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের তালিকা জেনে নিন

আপনারা আজ জানবেন বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের তালিকা ও তাদের বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে। বাংলাদেশে বর্তমান ৬ টি রাষ্ট্রয়াত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক রয়েছে যেগুলোর শতভাগ মালিকা বাংলাদেশ সরকার। বাংলাদেশের ব্যাংকসমূহকে মূলত দুই শ্রেণীতে ভাগ করা হয়েছে; (১) সরকারি ও (২) বেসরকারি।ব্যাংক হলো এমন একটি আর্থিক মধ্যস্থতাকারী প্রতিষ্ঠান যার কাজ হলো আমানত গ্রহণ করা, ঋণ দেওয়া, ঋণ ও অর্থ সৃষ্টি করা।

ব্যাংক গুলি হলো আমানত এবং ঋণ পরিষেবার বাইরেও বিভিন্ন ধরনের আর্থিক পরিষেবা অফার করে, যার মধ্যে প্রধান দুটি পক্ষের মধ্যে লেনদেন সম্পূর্ণ করা। উদাহরণস্বরূপ, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে, ব্যাংক ক্রেতাকে আশ্বস্ত করে যে বিক্রেতা পণ্যের জন্য অর্থ প্রদান করবে। ব্যাংক গুলি রাষ্ট্রীয় সঞ্চয়ের রক্ষক হিসাবেও কাজ করে। চলুন জেনে আসি বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংক সমূহ কোন গুলি ও সরকারি ব্যাংক সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য।

বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের তালিকা

বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের নাম, প্রতিষ্ঠা সাল, শাখা সমূহ ও তাদের ওয়েবসাইট লিংক নিম্নে টেবিল আকারে তুলে ধরা হলো;

ক্রমিক নং ব্যাংকের নাম প্রতিষ্ঠা সাল শাখা সমূহ ওয়েবসাইট লিংক
০১  অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড ১৯৭২ সাল ৯৬০ টি ওয়েবসাইট
০২ সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ১৯৭২ ১২২৭ টি ওয়েবসাইট
০৩ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড ১৯৭২ ৫৮৩ টি ওয়েবসাইট 
০৪ জনতা ব্যাংক লিমিটেড ১৯৭২ ৯১৭ টি ওয়েবসাইট
০৫ বেসিক ব্যাংক লিমিটেড ১৯৮৯ ৭২ টি ওয়েবসাইট
০৬ বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড ২০০৯ ৪৬ টি ওয়েবসাইট

সরকারি ব্যাংক সমূহ

 অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেডঃ

১৯৭২ সালে রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ নং-২৬ এর অধীনে হাবিব ব্যাংক ও কমার্স ব্যাংকের দায় ও সম্পদ নিয়ে অগ্রণী ব্যাংক গঠিত হয়। এই ব্যাংক ২০০৭ সালের ১৭ই মে কোম্পানী আইন-১৯৯৪ এর অধীনে রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক হিসেবে নিবন্ধিত হয়। অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড এর পরিচালনা পর্ষদ বর্তমানে চেয়ারম্যান, ০৫ জন পরিচালক ও ব্যবস্থাপনার সমন্বয়ে গঠিত। এই ব্যাংকে ১১ টি সার্কেল অফিস, ৫৩ টি জোনাল অফিস এবং হেড অফিস এ ৩৭ টি ডিভিশন রয়েছে। অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড এর ৯৬০ টি শাখা যার মধ্যে ৩৬ টি কর্পোরেট শাখা ও ৪৪ টি এডি শাখা রয়েছে। সকল শাখায় উন্নত তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে রিয়েল টাইম অনলাইন ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো ৯/ডি, দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।

অভিযোগ প্রদানের জন্য হটলাইনঃ
ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার
ভিজিল্যান্স বিভাগ
প্রধান কার্যালয়
ফোনঃ (০২)- ৭১৬১৭১৯
ইমেইলঃ dgmmdsquad@agranibank.org

তথ্য অধিকার আইন (আরটিআই) সম্পর্কিত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা
মিসেস রাওফা হক,
ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার
শাখা ও সাবসিডিয়ারিসমূহ/ ইউনিট নিয়ন্ত্রণ বিভাগ (আরটিআই)
ফোনঃ ৯৫৫৪১৮৮
ইমেইলঃ dgmbcd@agranibank.org

আপিল বিভাগ
জনাব মোহাম্মদ শামস উল ইসলাম,
ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড
প্রধান কার্যালয়
৯/ ডি, দিলকুশা বা/এ, মতিঝিল, ঢাকা
ফোনঃ ৯৫৮৫৭৪৮, ৯৫৮৫৭৪৯
ফ্যাক্সঃ ৯৫১৩৭৫২
ইমেইলঃ mdagrani@agranibank.org

 

সোনালী ব্যাংক লিমিটেডঃ

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড বাংলাদেশের বৃহত্তম রাষ্ট্র মালিকানাধীন একটি বাণিজ্যিক ব্যাংক। ১৯৭২ সালে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ নম্বর ২৬ অনুসারে ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান, ব্যাংক অব বাহ্ওয়ালপুর এবং প্রিমিয়ার ব্যাংক নিয়ে ‘সোনালী ব্যাংক’ প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর অনুকূলে ব্যাংকিং লাইসেন্স প্রদানের পর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেড-এর মধ্যে “ভেন্ডর এগ্রিমেন্ট” করা হয়। তারপর সোনালী ব্যাংক লিমিটেড কোম্পানী হিসেবে ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করে।

সোনালী ব্যাংক জনসাধারণের দৈনন্দিন ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি যেসব স্থানে বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা নেই সেসব স্থানে সরকারের পক্ষে সরকারি ট্রেজারী কার্যক্রম পরিচালনা করে। সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর বর্তমানে ১২২৫টি শাখা রয়েছে । এর মধ্যে দেশের অভ্যন্তরে ১২২৩টি এবং বিদেশে ২টি শাখা রয়েছে। দেশের অভ্যন্তরে ১২২৩টি শাখার মধ্যে গ্রামাঞ্চলে রয়েছে ৭৫৬টি এবং অবশিষ্ট ৪৬৭টি শহরাঞ্চলে। সকল শাখার মধ্যে ৪৫টি শাখার মাধ্যমে বৈদেশিক বাণিজ্য কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বিদেশে ২টি শাখার মধ্যে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতায় ১টি ও শিলিগুড়িতে ১টি। ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো ৩৫-৪২, ৪৪ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ

যোগাযোগ
সোনালী ব্যাংক লিমিটেড
অভিযোগ প্রদানের জন্য হটলাইনঃ
35-42,44 Motijheel C/A
Dhaka -1000
Bangladesh. PABX :0257161080-88
FAX – 88-02-9561410, 88-02-9552007
E-mail Address of Sonali Bank Limited

রূপালী ব্যাংক লিমিটেডঃ

রূপালী ব্যাংক বাংলাদেশের একটি রাষ্ট্রয়াত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংক অধ্যাদেশ, ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক এটি। পূর্ব পাকিস্তানে কার্যরত মুসলিম কমার্শিয়াল ব্যাংক, অস্ট্রেলেশিয়া ব্যাংক এবং স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের সকল সম্পদ ও দায় নিয়ে রূপালী ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হয়।

বর্তমানে ব্যাংকটির শাখার সংখ্যা ৫৭২ টি। সর্বশেষ শাখা , আড়াই হাজার শাখা, নারায়ণগঞ্জ। বর্তমানে রূপালী ব্যাংকে ৬০০০+ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী কাজ করছেন। সারাদেশে ২৬টি আঞ্চলিক অফিসসহ ১০টি বিভাগীয় অফিস রয়েছে। বিভিন্ন হিসাবে আমানত গ্রহণ এবং অর্থনীতির প্রায় প্রতিটি খাতে ঋণ বিতরণ ছাড়াও রূপালী ব্যাংক সারাদেশে এর শাখা সমূহের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব জমা গ্রহণ এবং খাদ্য সংগ্রহ কার্যক্রমে সরকারকে সেবা প্রদান করে থাকে। ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো ৩৪, দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ

জনতা ব্যাংক লিমিটেডঃ

জনতা ব্যাংক লিমিটেড বাংলাদেশের একটি রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক। এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বাণিজ্যিক ব্যাংক। ১৯৭২ সালে এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এই ব্যাংকটি স্বাধীনতার আগে ইউনাইটেড ব্যাংক লিমিটেড ও ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড হিসাবে গঠিত হয়েছিল। বর্তমান জনতা ব্যাংক লিমিটেডের, দেশে গ্রাম-শহর এবং বিদেশে সর্বমোট ৯১২ টি শাখা রয়েছে। নিউইয়ার্কভিত্তিক অর্থনৈতিক ম্যাগাজিন গ্লোবাল ফিন্যান্স’ ২০০৬, ২০০৭, ২০০৮ এবং ২০০৯ সালে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ ব্যাংক হিসেবে জনতা ব্যাংক লিমিটেড কে নির্বাচিত করে। এই ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো জনতা ভবন, ১১০, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা, বাংলাদেশ

বেসিক ব্যাংক লিমিটেডঃ

বেসিক ব্যাংক লিমিটেড ১৯৮৮ এ নিবন্ধিত এবং ২১ শে জানুয়ারী, ১৯৮৯ থেকে ব্যাংকটির কার্যক্রম শুরু করে। ব্যাংকটি বিসিসি ফাউন্ডেশনের ৭০ শতাংশ শেয়ার এবং বাংলাদেশ সরকার (জিওবি) এর ৩০ শতাংশ শেয়ার নিয়ে একটি যৌথ উদ্যোগে শুরু করে। তারপর ১৯৯২ সালে বাংলাদেশ সরকার ব্যাংকের শতভাগ মালিকানা গ্রহণ করে। সুতরাং ব্যাংকটি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংক। ব্যাংকটির বর্তমানে বাংলাদেশে ৭৮ টি শাখা রয়েছে। তবে ব্যাংকটিকে জাতীয়করণ করা হয় নি। সরকারী মালিকানাধীন ব্যাংক হিসেবেই ব্যাংকটি পরিচিতি লাভ করেছে। বেসিক ব্যাংক লিমিটেড এর প্রধান কার্যালয় ঢাকার মতিঝিলে অবস্থিত। এছাড়াও ব্যাংকটির নিজস্ব একটি ট্রেনিং ইন্সিটিউট রয়েছে। ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো ১৯৫, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।

যোগাযোগঃ 

ঠিকানাঃ সেনাকল্যান ভবন (৬ষ্ঠ তলা) ১৯৫ মতিঝিল সি/এ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ
টেলিফোনঃ (+৮৮০২) ৯৫৬৮১৯০, ৯৫৯০৫৪৮, ৯৫৯১০০২
ফ্যাক্সঃ (+৮৮০২) ৯৫৬৪৮২৯
ইমেইলঃ basicho@basicbanklimited.com

বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডঃ

বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড সংক্ষেপে বিডিবিএল বাংলাদেশের একটি রাষ্ট্রয়াত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক। বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক ও বাংলাদেশ শিল্প ঋণ সংস্থাকে একীভূত করে এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০০৯ সালে এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক ও বাংলাদেশ শিল্প ঋণ সংস্থাকে একীভূত করে এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০০৯ সালের ৩১শে ডিসেম্বর, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড দুটি সংস্থাকে অধিগ্রহণ করে। ২০১০ সালের ০৩ জানুয়ারি, ব্যাংকটি আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে। ব্যাংকটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ-এ নিবন্ধিত। বর্তমানে ব্যাংকটি সেবা সমূহ হলো কমার্শিয়াল ব্যাংকিং,বৈদেশিক বাণিজ্য, এসএমই ব্যাংকিং।

বর্তমানে বিডিবিএলের ব্যাংকিং শাখা রয়েছে ৪৬ টি তাদের সকল শাখা নেটওয়ার্কের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য বাণিজ্যিকভাবে সব ধরনের বাণিজ্যিক ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে থাকে। বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড (বিডিবিএল) এ অনলাইন ব্যবস্থাপনায় ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হয়। ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয় হলো ৮, রাজউক এভিনিউ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ

আপনি যা খুজছেনঃ
সরকারি ব্যাংকের তালিকা, সরকারী ব্যাংক এর তালিকা, সরকারি ব্যাংক সমূহ, সরকারি ব্যাংক কি কি, কোন কোন ব্যাংক সরকারী, বাংলাদেশে কোন কোন ব্যাংক সরকারী, কি কি ব্যাংক সরকারি, সরকারি ব্যাংক কয়টি ও কি কি, সরকারি ব্যাংক কয়টি কি কি, সরকারি ব্যাংক কোন গুলো, সরকারি ব্যাংকের নাম, সরকারি ব্যাংক কতটি ও কি কি, সরকারি ব্যাংক কয়টি, সরকারি ব্যাংক কোনগুলো, সরকারি ব্যাংক কতটি , কোন কোন ব্যাংক সরকারি, ,সরকারি ব্যাংক গুলোর নাম, বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংক গুলো কি কি, বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংক গুলোর নাম কি কি, সরকারী ব্যাংকের তালিকা, সরকারি ব্যাংক তালিকা, বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের নাম সমূহ, সরকারী ব্যাংক সমূহ, বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংকের লিস্ট,

Leave a Comment