বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২০ -বিকাশের চার্জ

ByBDNextWeb_Desk

Oct 19, 2020 , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,
বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আজকাল সবকিছু আধুনিক ও ডিজিটাল, আমরা চাই সব কিছু সহজ ভাবে পেটে এবং আমরা চাই ঝামেলা কম যেকোন কাজ করতে । তাই মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেমটি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অর্থের স্থানান্তর পরিষেবাটিকে আরও সহজ করে তুলেছে। আপনি বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই পরিষেবা সরবরাহকারীর বিকাশ সম্পর্কে জানেন আপনি এই পরিষেবাটি বাংলাদেশের যে কোনও অঞ্চলে যে কোনও ব্যক্তির কাছে অর্থ স্থানান্তর করতে ব্যবহার করতে পারেন। সুতরাং এই পোস্টে আমি কীভাবে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলব তা জানব ।

বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়টি এখন একেবারেই সহজ ! বর্তমানে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সুবিধা এয়ারটেল, বাংলালিংক, টেলিটক, গ্রামীণফোন এবং রবি সকল সংযোগে রয়েছে। আপনার নিজের বাড়ির স্বাচ্ছন্দ্যে বসে নতুন অ্যাপ্লিকেশন থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে খুলতে পারেন !

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২০

২০১১ সালে বিকাশ বাংলাদেশের মোবাইল পরিষেবা ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড দ্বারা চালু করা হয়েছিল। শুরুতে, এটি কিছু প্রাথমিক পরিষেবা সরবরাহ করেছে যেমন , ক্যাশ ইন , ক্যাশ আউট এবং সেন্ড মানি বা অর্থ প্রেরণ।বর্তমানে বিকাশে এখন অনেক পরিষেবা যেমন মোবাইল রিচার্জ, বৈদ্যুতিক বিল , ট্রেনের বাসের , ফ্লাইটের টিকিট কাটা , মোবাইল রিচার্জ , অনলাইন থেকে কেনাকাটা ইত্যাদি ।

তাহলে দেরি না করে আসুন জেনে নেওয়া যাক বিকাশ ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম গুলিঃ

আপনি যদি সহজে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে সবার প্রথমে আপনাকে  আপনার নিজের NID কার্ড থাকতে হবে এবং একটি এন্ড্রয়েড ফোন এর ব্যাবস্থা করতে হবে কারন এন্ড্রয়েড ফোন থেকে একটি এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে হবে অ্যাপটির এর নাম হল Bkash App আপনি চাইলে এই লিঙ্কে ক্লিক করে ডাউনলোড করতে পারেন লিঙ্কটি হল  bKash App 

অ্যাপটি ইনস্টল করার পরে এটি খুলুন। বিকাশ অ্যাপটি একবার খুললে আপনি প্রথমে লগইন / নিবন্ধকরণ পৃষ্ঠাটি দেখতে পাবেন। একটি নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে নিবন্ধকরণ লিখা স্থানে স্পর্শ করুন এবং পারমিশন দিন।

তারপর মোবাইল নম্বর চাইবে সেখানে স্থায়ী মোবাইল নম্বর প্রবেশ করানোর পরে নীচে লাল তীর বোতামটি স্পর্শ করুন।তীর বোতামটি স্পর্শ করার পরে, আপনাকে যে নম্বরটি দিয়েছে সেই সংস্থা বা অপারেটরটি নির্বাচন করুন। সেখানে সকল সিমের নাম থাকবে যেমন এয়ারটেল, বাংলালিংক, টেলিটক, গ্রামীণফোন এবং রবি ।

তখনি আপনার মোবাইল টি তে ছয় ডিজিটের একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে , সেই ভেরিফিকেশন কোডটি এখন সেখানে টাইপ করুন এবং পরে নীচে লাল তীর বোতামটি স্পর্শ করুন এবং আপনার মোবাইল নম্বরটি যাচাই করুন।

নতুন একটি পেজ আসবে সেখানে বিকাশ সম্পর্কে কিছু নিয়ম ও শর্তবলি  লেখা থাকবে আপনি সেখান সকল তথ্য ভালো করে পড়ুন এবং নীচে লাল তীর বোতামটি স্পর্শ করে আপনার আগ্রহ প্রকাশ করুন ।

একটি নতুন বিকাশ অ্যাকাউন্ট নিবন্ধন করতে আপনাকে তিনটি ছোট পদক্ষেপ অনুসরণ করতে বলবে তখন আপনি সে গুলা ফল করবেন। তাহলে চলুন পদক্ষেপ গুলা জানিঃ

১- আপনাকে আপনার NID ছবি তুলতে হবে এবং সাবমিট লিখা স্থানে ক্লিক করতে হবে ।
২- অবশ্যই প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করতে হবে এবং সাবমিট লিখা স্থানে ক্লিক করতে হবে ।
৩- নিজের একটি সেলফি ছবি তুলুন এবং সাবমিট লিখা স্থানে ক্লিক করতে হবে ।

এই পদক্ষেপগুলি সম্পূর্ণ করা আপনার উন্নয়নের জন্য নিবন্ধকরণ সম্পূর্ণ করবে। তারপরে এসএমএস পেতে অপেক্ষা করুন । এসএমএস আসার পর আপনার অ্যাকাউন্ট কনফ্রাম হয়ে যাবে। তখন আপনি এসএমএস ক্রস দিয়ে কেটে দিন, উপরের লগইনে ক্লিক করুন।

আপনি যে মোবাইল নম্বরটি দিয়ে অ্যাকাউন্টি খুলেছেন সেই মোবাইল নম্বর তা টাইপ করুন, পরবর্তীতে অপারেটরটি নির্বাচন করুন, তারপরে আপনার মোবাইল টি তে একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে , সেই ভেরিফিকেশন কোডটি অটো সেই হয়ে যাবে ,
এর পরে আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টের জন্য আপনাকে একটি নতুন পিন দুই বার পাতিয়ে কনফ্রাম করতে হবে।

বাটন ফোন ব্যাবহার কারিদের জন্য নিচের পদক্ষেপ গুলা ফলো করতে হবেঃ

অ্যাকাউন্ট খোলার প্রথম পর্যায়ে আপনার নিজের বিকাশ মোবাইল মেনুটি সক্রিয় করতে হবে। আপনার মোবাইল মেনুটি সক্রিয় করতে নীচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন-

  • বিকাশ মোবাইল মেনুতে * 247 # ডায়াল করে যান ।
  • মোবাইল মেনু চালু করুন” চয়ন করুন ।
  • আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টের জন্য একটি পাঁচ অঙ্কের পিন দুই বার পাতিয়ে কনফ্রাম করুন ।
  •  নিশ্চিত করতে পিনটি পুনরায় প্রবেশ করুন ।

বিকাশের চার্জ সমূহ

আপনার পিনটি সর্বদা গোপন রাখুন।

এই পদক্ষেপগুলি সফলভাবে অনুসরণ করার পরে, আপনার মোবাইল নম্বরটি আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর হয়ে যাবে। প্রাথমিকভাবে আপনি আপনার নতুন বিকাশ অ্যাকাউন্টে নগদ ইন, মোবাইল রিচার্জ এবং অর্থ পরিষেবাগুলি ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন। তবে আপনার কেওয়াইসি ফর্ম যাচাইকরণটি শেষ হওয়ার পরে আপনি ক্যাশ আউট, মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন, পেমেন্ট করতে পারবেন এবং বিকাশের অন্যান্য সমস্ত পরিষেবা উপভোগ করতে পারবেন। আপনার অ্যাকাউন্টটি পুরোপুরি সক্রিয় হয়ে গেলে, * 247 # ডায়াল করুন এবং বিকাশ পরিষেবাগুলি ২৪ ঘন্টা, সপ্তাহে ৭ দিন উপভোগ করুন। গ্রাহকরা বিকাশ কেন্দ্র বা বিকাশ যত্ন থেকে অ্যাকাউন্ট খুললে সমস্ত পরিষেবা গ্রহণ করতে সক্ষম হবেন।


বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট ব্লক খোলার নিয়ম ,বিকাশ অ্যাপে একাউন্ট খোলার নিয়ম ,bkash account khola niyam ,নিজে নিজে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২০ ,bkash account kholar niyom ,অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট খোলার সুবিধা ,বিকাশ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি ,বিকাশ এপ দিয়ে একাউন্ট খোলার নিয়ম  ,বিকাশ একাউন্ট খোলার ,বিকাশ একাউন্ট খোলার উপায় ,নতুন বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ এপস দিয়ে একাউন্ট খোলার নিয়ম ,

বিকাশ এপস এ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট খোলা ,বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম কি ,ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ অ্যাপ থেকে একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ অ্যাপ দিয়ে একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম ,মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট লক খোলার নিয়ম ,বিকাশ একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয় ,কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খোলা যায় ,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *