বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি করার উপায়

বর্তমানে অধিকাংশ পুরুষ যৌন সমস্যা ভুগছে। তার মধ্যে একটি প্রধান সমস্যা হল তার বীর্যের উৎপাদনের মান হ্রাস। বর্তমান নারীদের তুলনায় পুরুষের বন্ধ্যাত্বের হারও বাড়ছে। তারা এখন বিভিন্ন কেমিক্যাল খাদ্যের প্রতি আসক্ত হয়ে গেছে যেমন, কোমল পানিও, বাইরের খাবার, ধূমপান ও মদ্যপান ইত্যাদি। এই খাদ্যের প্রতি আসক্ত থাকলে তাদের বীর্য উৎপাদন হ্রাস পাবে। কারন এগুলা দেহের কোন উপকার করে না, বরং ক্ষতি করে থাকে। এই খাদ্য গুলি আপনার দেহের স্পার্মের পরিমাণ এবং গুনাগুণ নষ্ট করে দেয়। শুক্রাণুর পরিমাণ বাড়াতে এবং এর গুণমান বাড়ানোর জন্য সঠিক খাদ্যাভাস এবং সচেতনতা প্রয়োজন। আপনারা কি খাবার খেলে বা কি করলে বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে, সে সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে আসি,

বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি

বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি

বীর্য উৎপাদন করার মূল উপায় হল পুষ্টিকর ও ভিটামিন জাতীয় খাবার খাওয়া। দৈনন্দিন খাবার তালিকায় কিছু পরিমান পুষ্টিকর খাবার খেলে পুরুষদের বীর্যের পরিমাণ এবং বীর্যের গুণগত মান বৃদ্ধি পাবে। চলুন জেনে নেয়া যাক কি খাবার খেলে বীর্য উৎপাদন হয়,

বীর্য উৎপাদনকারী খাবারঃ

বীর্য উৎপাদনকারী বিভিন্ন ধরনের খাবার রয়েছে যা খেলে প্রচুর পরিমানে পুরুষদের বীর্য বৃদ্ধি পায়। এর মধ্যে ভিটামিন সি (লেবু ,আঙ্গুরের জুস ) জাতীয় ফলে প্রচুর পরিমানে এন্টিঅক্সিডেন বিদ্যমান থাকে এবং তৈলাক্ত মাছে আছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড যা স্পার্মের গুন বাড়াতে সহায়ক যা পুরুষের ঘন বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধিবীর্যের মান উন্নত করে। এমন  আরো আনেক খাবার আছে যা প্রচুর বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি করে থাকে চলুন নিম্নে সেই খাবার সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে আসিঃ

১) কালোজিরাঃ কালোজিরায় রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ অ্যামোইনো এসিড, ২১ শতাংশ প্রোটিন এবং ৩৮ শতাংশ শর্করা। নিয়মিত নিয়ম করে কালোজিরা খেলে শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি পায় যা বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

২) কলা:- কলা স্পার্মের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। কলায় বোমেনাইল নামের বিশেষ এক ধরণের এঞ্জাইম আছে যা যৌন উদ্দিপক হরমোন গুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও কলায় ভিটামিন বি১, ভিটামিন এ ও ভিটামিন সি আছে যেগুলো শরীরের শক্তি বাড়ায় এবং বীর্য উত্‍পাদন করতে সহায়তা করে।

৩) রসুনঃ রসুনে আছে সেলেনিয়াম নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা যৌনঅঙ্গের সক্রিয়তা বাড়ায়। প্রতিদিন নিয়ম করে কয়েক কোয়া কাঁচা রসুন খেলে শরীরের যৌবন দীর্ঘ স্থায়ী হয় । তবে রসুন খাওয়ার শেষে একটু গরম পানি বা দুধ খেলে ভালো ফল পাবেন।

৪) ভিটামিন সি জাতীয় ফলঃ ভিটামিন সি জাতীয় ফলে প্রচুর পরিমানে এন্টিঅক্সিডেন বিদ্যমান থাকে যা পুরুষের বীর্যের মান উন্নত করে। ভিটামিন সি আছে যে ফল গুলিতে সেগুলি হলঃ লেবু,আঙ্গুর, মাল্টা, জাম্বুরায়, পাকা পেঁপে, আনারস ইত্যাদি।

৫) ডার্ক চকোলেট:- ডার্ক চকোলেট স্পার্মের পরিমাণ বাড়ায় এবং গুনাগুণ বৃদ্ধি করে। ডার্ক চকোলেট অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ যা যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে। ডার্ক চকোলেটে এল-আর্গিনাইন এইচসিএল এবং অ্যামিনো অ্যাসিডও রয়েছে। এই উপাদানগুলি শুক্রাণুর সংখ্যা এবং শুক্রাণুর পরিমাণ বাড়িয়ে তোলে।

৬) অন্যান্য খাদ্যঃ রসুন, চীনাবাদাম,মধু, কালোজিরা, কুমড়া বীজ, কিসমিস, ভিটামিন সি, ই, ডি ইত্যাদি জাতীয় খাবার বেশি করে গ্রহণ করবেন যা আপনার শুক্রানুর সংখ্যা বৃদ্ধি করে। এই খাদ্য গুলি বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও বীর্যের পরিমাণ বাড়াতে সাহায্য করে।

বীর্য উৎপাদন করার প্রাথমিক উপায়ঃ

০১) অতিরিক্ত ভারী প্যান্ট পরবেন না।

০২) আপনার টেস্টিকল ঠান্ডা রাখুন।

০৩) ঘন ঘন বীর্যপাত (যৌন মিলন/হস্তমৈথুন) যাতে নাহয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

০৪) অস্বীকৃত মেডিসিন থেকে সাবধান থাকুন।

০৫) লুঙ্গী, ট্রাউজার বা পাতলা জিন্স পরুন।

০৬) স্ট্রেস বা দুশ্চিন্তা থেকে দূরে থাকুন।

০৭) ধুমপান, মদ্যপান পরিহার করুন।

০৮) প্রতিদিন ব্যায়াম করুন।

০৯) মাছ, মাংস, ডিম, ফল ও সবজি প্রচুর পরিমানে খান।

১০) সোয়া-ভিত্তিক খাবার এবং উচ্চ শর্করা যুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন।

 

বিদ্রঃ জেনে রাখুন সন্তান চাইলে শুধুমাত্র নারীদের ওপরে নজর দিলেই  হবে না, পুরুষদের ওপরে ও বিশেষ নজর দেওয়া উচিৎ।


বীর্য উৎপাদন বৃদ্ধি করার উপায়, বীর্য উৎপাদনকারী খাবার, বীর্য উৎপাদন প্রক্রিয়া, বীর্য উৎপাদনকারী ঔষধ, বীর্য উৎপাদন করার উপায়,
বীর্য উৎপাদনের খাবার, কি খেলে বীর্য উৎপাদন হয়, বীর্য উৎপাদনের উপায়,

Leave a Comment