বেসরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ থেকে নার্সিং ভর্তির নতুন নীতিমালাঃ

সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অভিন্ন ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। এখানে ন্যূনতম পাস যোগ্যতা ৩০ নম্বর পেতে হবে।

কোর্সের নামঃ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি ।

নার্সিং ভর্তি পরীক্ষা আবেদনের তারিখ

আবেদন শুরু : ১৫ জুলাই ২০২১

আবেদন শেষ : ১৭ আগষ্ট ২০২১

অনলাইনে ফি জমা দেওয়ার শেষ তারিখ : ১৮ আগষ্ট ২০২১

প্রবেশপত্র ডাউনলােডের তারিখ : পরবর্তি তে জানিয়ে দেয়া হবে।

ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচিঃ পরবর্তি তে জানিয়ে দেয়া হবে।

 

নার্সিং ভর্তির আবেদনের ওয়েব সাইট লিংক:

আবেদনের লিংক: http://dgnm.teletalk.com.bd নার্সি

মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট: www.dgnm.gov.bd

বিএনএমসি ওয়েবসাইট: www.bnmc.gov.bd

নার্সিং আবেদনের নিয়মঃ

প্রথমেই প্রতি আবেদনের জন্য নার্সিং এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট অথবা http://dgnm.teletalk.com.bd/ যেতে হবে। এর পর নির্ধারিত অপশন বাছাই করে সেটি থেকে আবেদন পূরন করে নিতে হবে। অনলাইনে নার্সিং ভর্তি সাবমিটের পূর্বে অবশ্যই স্বাক্ষর এবং ছবি আপ্লোড করতে হবে। সদ্য তোলা রঙিন ছবি ৩০০*৩০০ সাইজ এর মাপের  হতে হবে এবং ছবিটি JPG file এর ১০০ কেবি সাইজ এর মধ্যে হতে হবে।

  বেসরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি ভর্তি ২০২০-২০২১

 

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি ভর্তি পরীক্ষা

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি ভর্তি পরীক্ষার নম্বর

শুধুমাত্র ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা হবে ।

প্রতিটি প্রশ্নের মান = ১ নম্বর করে থাকবে।

বিএসসি ইন নার্সিং ২০২০-২১ মান বন্টন

বাংলা মার্ক – ২০ নম্বর।

ইংরেজী মার্ক – ২০ নম্বর।

গণিত মার্ক – ১০ নম্বর।

বিজ্ঞান মার্ক – ৩০ নম্বর ( জীববিজ্ঞান , পদার্থ ও রসায়ন )।

সাধারণ জ্ঞান মার্ক নম্বর – ২০ নম্বর।

মোট – ১০০ নম্বর।

নার্সিং ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন -ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি  

বাংলা মার্ক – ২০ নম্বর।

ইংরেজী মার্ক – ২০ নম্বর।

গণিত মার্ক – ১০ নম্বর।

সাধারণ বিজ্ঞান মার্ক – ২০ নম্বর।

সাধারণ জ্ঞান মার্ক – ২৫ নম্বর।

নার্সিং ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি 

বাংলা মার্ক – ২০ নম্বর

ইংরেজী মার্ক – ২০ নম্বর

গণিত মার্ক – ১০ নম্বর

সাধারণ বিজ্ঞান মার্ক – ২০ নম্বর

সাধারণ জ্ঞান মার্ক – ২৫ নম্বর

মােট – ১০০ নম্বর

নার্সিং ভর্তি পরীক্ষার – মেধা তালিকা

ভর্তি পরীক্ষায় = ১০০ নম্বর এ পেয়ে উৎকীর্ণ হতে হবে।

এসএসসি + এইচএসসি জিপিএ = ৫০ নম্বর

SSC GPA X 4 = 20

HSC GPA X 6 = 30

লিখিত পরীক্ষায় ছাত্রছাত্রী কে ১০০ নম্বরের মধ্যে নূন্যতম ৪০ নম্বর পেতে হবে ।

৪০ নম্বরের কম প্রাপ্তরা অকৃতকার্য বলেগন্য হবে ।

নার্সিং ভর্তি পরীক্ষার -কেন্দ্রের নাম ও কোড

ঢাকা – ১

রাজশাহী – ৩

সিলেট – ৫

রংপুর – ৭

চট্রগ্রাম – ২

খুলনা – ৪

বরিশাল – ৬

ময়মনসিংহ – ৮

 

 

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালে নার্সিং ভর্তি

 

বিএসসি ইন নার্সিং:
SSC: Minimum GPA: 2.5 , HSC: Minimum GPA: 2.5, SSC+HSC Total GPA minimum GPA: 6.00, SSC & HSC তে সায়েন্স গ্রুপ সাথে জীববিজ্ঞানে পাশ মার্ক থাকতে হবে।
এবং HSC পাসের সাল 2018/2019/2020 হতে হবে।

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারী:
SSC: Minimum GPA: 2.5, HSC: Minimum GPA: 2.5, SSC+HSC Total minimum GPA: 5.50 লাগবে আর, যেকোনো গ্রুপের থেকে আবেদন করতে পারবে।
এবংপাসের সাল SSC 2015/2016/2017 & HSC 2018/2019/2020 হতে হবে।

ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি:
SSC: minimum GPA: 2.5, HSC: minimum GPA: 2.5, SSC+HSC total minimum GPA: 5.50 লাগবে। যেকোনো গ্রুপের থেকে আবেদন করতে পারবে।
এবংপাসের সাল SSC 2015/2016/2017 & HSC 2018/2019/2020 হতেহবে।

**

সরকারিনার্সিং কলেজ ও ইনস্টিটিউট এ মোট আসন সংখ্যাঃ

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি (৩বছর) :

মোট ইনস্টিটিউট সংখ্যা: ৪৩টি
মোট আসন: ২৫৮০টি।

মেয়ে: 2540 জন

ছেলে: 40 জন

(মিটফোর্ড, খুলনা, কুমিল্লা, দিনাজপুর, ফরিদপুর পাঁচটি মেডিকেল কলেজ সংযুক্ত নার্সিং ইনস্টিটিউট)

***

  1. ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি (৩বছর) :

মোট ইনস্টিটিউট সংখ্যা: ৩৮টি
মোট আসন: ৯৭৫টি।
শুধুমাত্র মেয়েদের জন্য।

**

  1. বিএসসি ইন নার্সিং (৪বছর) :

মোট কলেজ সংখ্যা: ১১টি
মোট আসন: ১১০০টি।

মেয়ে: ৯৯০জন

ছেলে: ১১০জন

এছাড়াও ৭টি আর্মি নার্সিং কলেজ রয়েছে
মোট আসন: ৩৩৫টি

**

বেসরকারি নার্সিং কলেজ ও ইন্সটিটিউটে মোট আসন সংখ্যা:

**

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি:

মোট ইন্সটিটিউট: ১৬১টি
মোট আসন: ৭৮২০

**

ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি:

মোট ইন্সটিটিউট: ১৭টি
মোট আসন: ৫৯০টি

বিএসসি ইন নার্সিং :

মোট কলেজ: ৫৮টি
মোট আসন: ২৬৭০টি

 

যারা ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে নার্সিং ভর্তি পরীক্ষা দিবে তাদের জন্য ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টনঃ

বিএসসি ইন নার্সিং

বাংলা: ১৫ নাম্বার
ইংরেজী: ১৫ নাম্বার
পদার্থবিজ্ঞান: ১৫ নাম্বার
রসায়নবিজ্ঞান: ১৫ নাম্বার
জীববিজ্ঞান: ৩০ নাম্বার
সাধারনজ্ঞান: ১০ নাম্বার

মোট:১০০ নাম্বার

 

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি:

বাংলা: ২৫ নাম্বার
ইংরেজী: ২৫ নাম্বার
সাধারনবিজ্ঞান: ৪০ নাম্বার (৯ম-১০ম শ্রেণীর সাধারণ বিজ্ঞানবই)
সাধারনজ্ঞান: ১০ নাম্বার

মোট:১০০ নাম্বার

 

ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি

বাংলা: ২৫ নাম্বার
ইংরেজী: ২৫ নাম্বার
সাধারনবিজ্ঞান: ৪০ নাম্বার (৯ম-১০ম শ্রেণীর সাধারণ বিজ্ঞানবই)
সাধারনজ্ঞান: ১০ নাম্বার

মোট:১০০ নাম্বার।

 

সরাসরি নার্সিং কলেজে পড়তে গেলেও পেতে হবে ন্যূনতম ৩০ নম্বর। অনেকের মধ্যে একটা প্রশ্ন থাকে যে বেসরকারি ভাবে নার্সিং পড়তে গেলে কেমন খরচ লাগে? এটা নির্ভর করে কোর্স এবং যে প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হবেন তার উপর। সাধারণত ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি ও ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি পড়তে প্রতিষ্ঠানভেদে  ৯০ হাজার থেকে ১লাখ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত দিতে হয়। অন্যদিকে বিএসসি ইন নার্সিং পড়তে গেলে প্রতিষ্ঠানভেদে ১লাখ ৮০ হাজার থেকে ২ লাখ ২০ হাজার  পর্যন্ত খরচ লাগে। খুব জরুরী একটা বিষয় হল যেকোন প্রতিষ্ঠানে ভর্তি  হওয়া যাবে নয়া। অবশ্যই বিএনএমসি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে হবে। কারন বিএনএমসি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান থেকে পাস নয়া করলে বিএনএমসি রেজিস্ট্রেশন পাবেন না। বিএনএমসি রেজিস্ট্রেশন ব্যতীত সরকারী চাকরীর জন্য আবেদন করতে পারবেন না। তাই ভালো করে খোজ খবর নিয়ে ভালো মানের প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়াই ভালো। কারন নিজের একটু অসতর্কতার জন্য নিজের ভবিষ্যত এর ক্ষতি হবে।

বেসরকারী প্রতিষ্ঠান গুলো তে ভর্তি হতে গেলে নিচের কিছু বিষয় খেয়াল রাখা উচিতঃ

# মূল সনদপত্র ও মার্কশীট একবার জমা দিলে সেগুলো কোর্স শেষ না হওয়া পর্যন্ত ফেরত পাবেন না। ফেরত নেওয়ার একমাত্র পথ পুরো কোর্স ফি একবারে পরিশোধ করে ভর্তি বাতিল করা।

# অবশ্যই কারো সাথে অল্প টাকায় ভর্তি হতে যাবেন না। কারন বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে পড়ার জন্য যে খরচ এর কথা বলা হয়েছে ওইটাই মোটামুটি সব প্রতিষ্ঠান নিয়ে থাকে। ২/১ টা প্রতিষ্ঠান অল্প কিছু বেশি নিয়ে থাকে।

# বিএনএমসি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্য প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হবেন না। অনেকেই না বুঝে খারাপ লোকের প্রলোভনে পড়ে টেকনিক্যাল বোর্ড এর অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হন। এতে বিএনএমসি রেজিস্ট্রেশন পাবেন না। আর বিএনএমসি রেজিস্ট্রেশন না পেলে সরকারী চাকরিতে আবেদন করার যোগ্যতা হারাবেন।


নার্সিং কলেজে ভর্তি ২০২০-২০২১,নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা, নার্সিং কলেজে ভর্তি 2020,নার্সিং কলেজ ভর্তি, সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা, বেসরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি, সিলেট নার্সিং কলেজে ভর্তি, বারডেম নার্সিং কলেজে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০-২০২১, বেসরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা, নার্সিং ভর্তি ২০২০, নার্সিং ভর্তি ২০২০-২০২১, বেসরকারি মিডওয়াইফারি ভর্তি, বেসরকারী নার্সিং ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, বিডিনেক্সট ওয়েব, bd next web,

Leave a Comment