যশোর জেলার বিখ্যাত স্থান সমূহ

আজ আমরা আপনাদের জানাতে চলেছি যশোর জেলার বিখ্যাত স্থান সম্পর্কে কিছু তথ্য। প্রশাসনিক কাঠামোর দিক থেকে যশোর শহর বাংলাদেশের ১৩তম বৃহত্তম জেলা। এটি বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা। খুলনা বিভাগের অধীন ৮টি উপজেলা নিয়ে এ জেলা গঠিত। রাজধানী ঢাকা থেকে সড়ক পথে এ জেলার দূরত্ব প্রায় ২৭০ কিলোমিটার। এই যশোর জেলার বিখ্যাত জায়গা রয়েছে অনেক তার মধ্যে বিখ্যাত ও নামকরা ভালো স্থান গুলির নাম ঠিকানা, কোথায় আবস্থিত কিভাবে আপনি যাবেন তার সকল বিস্তারিত নিম্নে তুলে ধরা হল। তাহলে চলুন জেনে আসি যশোর জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ

ক্রমিক নং বিখ্যাত স্থানের নাম
ঝাপা বাওড়  ও ব্রিজ
চাঁচড়ার মৎস উৎপাদন কেন্দ্র
গদখালীর ফুলের বাগান
 ৪ বিনোদিয়া ফ্যামিলি পার্ক
 ৫ যশোর বোট ক্লাব
বেনাপোল স্থল বন্দর
দমদম পীরের ডিবি
মহাকবি মাইকেল মধু সূদন দত্তের বাড়ি
মীর্জানগর হাম্মামখানা
১০ ধীরাজ ভট্রাচার্যের বাড়ি
১১ চাঁচড়া রাজবাড়ী
১২ বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের মাজার।
১৩ কালুডাংগা মন্দির
১৪ তুলা বীজ বর্ধন খামার
১৫ গদাধরপুর বাওড়
১৬ খড়িঞ্চা বাওড়
১৭  হরিনার বিল
১৮ যশোর কালেক্টরেট ভবন

যশোর জেলার বিখ্যাত স্থান

১) ঝাপা বাওড়  ও ব্রিজ:
ঝাপা বাওড় সড়ক পথে- ঢাকা থেকে ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়কে যশোর অতিক্রম করে রাজার হাট নামক স্থান হতে সাতক্ষীরা রোডে প্রায় ১৪ কিঃমিঃ মণিরামপুর উপজেলা পরিষদ। পরিষদ হতে রাজগঞ্জ বাজার সংলগ্ন ঝাপা বাওড় ১০ কি:মি:। অথবা যশোর শংকরপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে পলিরহাট নামক স্থান হতে প্রায় ২০ কিঃমিঃ দক্ষিণে রাজগঞ্জ বাজার সংলগ্ন ঝাপা বাওড় অবস্থিত।

২) চাঁচড়ার মৎস উৎপাদন কেন্দ্র:
চাঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মাত্র তিন কিঃমিঃ মিটার দূরে চাঁচড়ার মৎস উৎপাদন কেন্দ্রটি অবস্থিত। ১০ নং চাঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ভ্যান/ইজিবাইক/বাস এ করে যাওয়া যায়। এবং চাঁচড়া চেকপোষ্ট থেকে ভ্যান/ইজিবাইক ভাড়া মাত্র ৫/-টাকা।

৩) গদখালীর ফুলের বাগান:
যশোর শহরের চাচড়া হতে বাসযোগে ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালী নামক স্থানে নামলেই গদখালীর ফুল বেচা-কেনা চোখে পড়বে। এটি হল বাংলাদেশের ফুলের রাজধানী।

৪) বিনোদিয়া ফ্যামিলি পার্ক:
পালবাড়ি মোড় থেকে ক্যান্টনমেন্ট দিকে অগ্রসর হলে এই পার্ক পাওয়া যায়। এটি রাস্তার পাসে অবস্থিত। পালবাড়ি মোড় থেকে ভ্যান/ইজিবাইক ভাড়া মাত্র ৫-১০/-টাকা।

৫) যশোর বোট ক্লাব:
পালবাড়ি মোড় থেকে বিনোদিয়া ফ্যামিলি পার্ক পার হলেই একটু সামনে এই পার্ক পাওয়া যায়। পালবাড়ি মোড় থেকে ভ্যান/ইজিবাইক ভাড়া মাত্র ১০-১৫/-টাকা।

৬) বেনাপোল স্থল বন্দর:
যশোর শহরের চাচড়া হতে গাড়ী,বাসযোগে করে শার্সা উপজেলায় যেতে হয়। শার্শায় বেনাপোল বন্দর অবস্থিত।

৭) দমদম পীরের ডিবি:
সড়ক পথে- ঢাকা থেকে ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়কে যশোর অতিক্রম করে রাজার হাট নামক স্থান হতে সাতক্ষীরা রোডে প্রায় ০৭ কিঃমিঃ মণিরামপুর এর দিকে সড়ক সংলগ্র ভোজগাতী ইউপির অধীন।

৮) মহাকবি মাইকেল মধু সূদন দত্তের বাড়ি:
সড়ক পথে- ঢাকা থেকে ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়কে যশোর অতিক্রম করে রাজার হাট নামক স্থান হতে সাতক্ষীরা রোডে প্রায় ৩৬ কিঃমিঃ কেশবপুর উপজেলা পরিষদ ।পরিষদ হতে কেশবপুর টু সাগরদাঁড়ী প্রায় ১৬ কি:মি: অতিক্রম করে মহাকবি মাইকেল মধুসূধন দত্তের পৈত্রিক জন্ম ভূমি।

৯) মীর্জানগর হাম্মামখানা:
কেশবপুর হতে ৭ কি.মি. পশ্চিমে কপোতাক্ষী ও বুড়িভদ্রা নদীর সঙ্গমস্থল ত্রিমোহিনী নামক স্থানে আবস্থিত।

১০) ধীরাজ ভট্রাচার্যের বাড়ি:
কেশবপুর হতে ৭কি.মি দুরে পাঁজিয়া গ্রামে অবস্থিত

১১) চাঁচড়া রাজবাড়ী:
চাঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মাত্র চার কিঃমিঃ দূরে চাঁচড়ার রাজবাড়ী অবস্থিত । ১০ নং চাঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ভ্যান/ইজিবাইক এ করে যাওয়া যায়। এবং চাঁচড়া চেকপোষ্ট থেকে ভ্যান/ইজিবাইক ভাড়া মাত্র ৫/-টাকা।

১২) বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের মাজার:
যশোর বেনাপোল সড়ক থেকে শার্শা উপজেলা থেকে উত্তরের রাস্তা ধরে ডিহি ইউনিয়নের যাওয়ার পরে রিকশা করে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের মাজারে পৌছানো যাবে ।

১৩) কালুডাংগা মন্দির:
এই মন্দির দোহাকুলা ইউনিয়নে অবস্থিত।বাঘারপাড়া হতে বালিডাংগা বাজার পৌঁছে তালতলা যেতে হবে। তালতলা হতে বামদিকে ৫০০গজ দূরত্বে কালুডাংগা মন্দির অবস্থিত।বাঘারপাড়া হতে যে কোন যানবাহনে যাওয়া যায়।

১৪) তুলা বীজ বর্ধন খামার:
উপজেলা সদর থেকে ভ্যান, রিক্সায় বা ইজিবাইকে যাওয়া যায়। উপজেলা থেকে দূরত্ব ১০ কিমি।

১৫) গদাধরপুর বাওড়:
চৌগাছা উপজেলার সদর হতে ৮ কি.মি দূরে চৌগাছা-মাশিলা সড়কের দক্ষিণ পাশে গদাধারপুর গ্রামে সীমান্তের শূন্য লাইনে আবস্থিত।

১৬) খড়িঞ্চা বাওড়:
চৌগাছা উপজেলার সদর হতে ৮ কি.মি দূরে চৌগাছা-পূড়াপাড়া পাকা সড়কের দক্ষিণ পাশে খড়িঞ্চা গ্রামে অবস্হিত।

১৭) হরিনার বিল :
চাঁচড়া থেকে চেকপোষ্ট থেকে মাত্র ৫ কিঃমিঃ মিটার দূরে হরিনার বিল অবস্থিত। ১১ নং রানগর ইউনিয়ন পরিষদ এর আওতায় এই বিলটি। শংকরপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ২ কিঃমিঃ মিটার দূরে এই বিল। বাসস্ট্যান্ড থেকে ভ্যান/ইজিবাইক ভাড়া মাত্র ১০-১৫/-টাকা।

১৮) যশোর কালেক্টরেট ভবন:
যশোর শহর কেন্দ্রিক দাঁড়িয়ে আছে এই কালেক্টরেট ভবন টি। এটি যশোর শহরের পরে অবস্থিত।


যশোরের বিখ্যাত স্থান, যশোরের বিখ্যাত জায়গা, যশোর জেলার দর্শনীয় স্থান, যশোর জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ, যশোরের বিখ্যাত, যশোর দর্শনীয় স্থান,  যশোর কিসের জন্য বিখ্যাত, যশোর কি জন্য বিখ্যাত, যশোর শহরের দর্শনীয় স্থান,

Leave a Reply

Your email address will not be published.