২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ও পরীক্ষা’র তথ্য

ডিসেম্বর ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ও পরীক্ষা’র তথ্য এর অপেক্ষায় রয়েছেন। তাদের জন্য নিয়ে এলাম নতুন খবর। চলুন জেনে আসি, উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ড পরীক্ষা ডিসেম্বর ২০২১ এ অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষা দশটি শিক্ষাবোর্ডের আওতায় অনুষ্ঠিত হবে। এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০২১ প্রকাশ করা হয়েছে। তাদের জন্য ক্লিয়ার ছবিসহ আমাদের ওয়েবসাইটে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য কিছু শর্ত:

  • প্রতিটি প্রার্থিকে পরীক্ষা হলের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ে প্রবেশ করতে হয়।
    আবেদনকারীদের তাদের প্রবেশপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ড, প্রয়োজনীয় সামগ্রী সহ একটি বাক্স, ক্যালকুলেটর ইত্যাদি বহন করতে হবে, তবে এইগুলি বহনের জন্য পরিষ্কার বা স্পষ্ট ব্যাগ ব্যবহার করবে।এছাড়া অন্য কাগজপত্র ও  মোবাইল বহন করতে পারবেন না। যদি ধরে ফেলে তাহলে ফোন চিজ বা বহিষ্কার করা হবে।
  • সমাধান শীট ভাঁজ করতে পারবেন না।
  • প্রার্থীদের রোল ও রেজিস্ট্রেশন নাম্বার সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। এবং প্রেজেন্ট শিটে আপনাদের  স্বাক্ষর করা উচিত।
    এইচএসসি রুটিন ছাড়াও, আমরা আলিম পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করব।

এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ও পরীক্ষা’র তথ্য

২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ও পরীক্ষা’র তথ্য

এসএসসি পরীক্ষার নতুন খবর

আন্তঃ বোর্ড সমন্বয় উপ-কমিটি স্বাস্থ্য বিধিমালা মেনে এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। যদি করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আরও অবনতি না ঘটে তবে সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে বা অক্টোবরের শুরুতে পরীক্ষা শুরু হতে পাধাকসংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে ‘জেড’ আকারে রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছে। দুটি শিক্ষার্থী একটি ঘরে প্রথম বেঞ্চে বসলে একজন দ্বিতীয় বেঞ্চে বসবেন।

দুজন আবার পরের বেঞ্চে বসবেন। এটি এক ছাত্র থেকে অন্য শিক্ষার্থীর তিন ফুট দূরত্ব নিশ্চিত করবে। প্রয়োজনে বেঞ্চগুলি আগের চেয়ে আরও দূরে স্থাপন করা হবে। এইভাবে, শিক্ষার্থীদের থাকার জন্য কতগুলি কেন্দ্রের প্রয়োজন হতে পারে সে সম্পর্কে মাঠের স্তর থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসাররা (ইউএনও) এ বিষয়ে স্থানীয় শিক্ষকদের সাথে কাজ করছে।

চলতি বছরের ১ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রায় ১৩ লাখ শিক্ষার্থী বসার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরীক্ষা পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছিল। এতো দিন ধরেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার 15 দিন পরে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু করার কথা ছিল। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হওয়া এখনও অনেকটাই অনিশ্চিত। এমন বাস্তবতায় স্বাস্থ্যবিধি নিয়ম মেনেই পরীক্ষা পরিচালনা করার এই ধারণা চলছে।

মাঠপর্যায়ে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মতামতের পরিপ্রেক্ষিতে পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হবে বলে জানা গেছে। এই পরীক্ষার তফসিল শিগগিরই ঘোষণা করা হবে। তবে একটি সূত্র বলেছে যে সবকিছু এখন চলমান, সুতরাং করোনার পরিস্থিতি যদি আরও অবনতি না ঘটে তবে সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে বা অক্টোবরের শুরুতে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে পারে।

সূত্রমতে, শিক্ষা মন্ত্রকের দুই সচিব এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিবদের মধ্যে গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবের সাথে শিক্ষার ‘পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা’ নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা (জেএসসি) না নেওয়ার প্রস্তাব ছিল। অন্যান্য ক্লাসগুলি অটোপাসের মাধ্যমে পরবর্তী শ্রেণিতে অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা করে। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়ার বিষয়টিও আলোচিত হয়। এর পর এ বিষয়ে শিক্ষা বোর্ডগুলি কাজ শুরু করে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সেক্রেটারি প্রফেসর তপন কুমার সরকার কালের কণ্ঠকে বলেছিলেন, “এইচএসসি পরীক্ষা দীর্ঘ সময়ের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এর জন্য আমরা কীভাবে বিকল্প পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা করছি। কীভাবে বিশদ তথ্য চাওয়া হয়েছে? অনেক কেন্দ্র বা উপকেন্দ্রের শিক্ষার্থীদের তিন ফুট দূরত্বে স্থান দেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে।আমরা এগুলি পাওয়ার পরে শিগগিরই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠিয়ে দেব।তারা স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সাথে পরামর্শ করে পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করবেন।

আন্ত: বোর্ডের শিক্ষা সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমানের প্রার্থীদের প্রায় আড়াই হাজার কেন্দ্রে পরীক্ষায় বসতে হয়েছিল। তবে প্রতিটি কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের ‘জেড’ আকারে রেখে বেঞ্চগুলির মধ্যে দূরত্ব বাড়ানো হলে সাত থেকে আট হাজার প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজন হতে পারে। যেহেতু দেশে এতগুলি কলেজ নেই তাই কেন্দ্রের সংখ্যা নির্ধারিত হবে এবং এর অধীনে তিন বা চারটি উপকেন্দ্র স্থাপন করা হবে। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের আশেপাশের স্কুলগুলিও একটি উপ-কেন্দ্র হিসাবে ঘোষণা করা যেতে পারে। শিক্ষার্থীরা যদি এভাবে ছড়িয়ে পড়ে তবে একটি কেন্দ্রে কোনও বিভ্রান্তি দেখা দেবে না।

 

 

এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ ২০২১

 

 

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এইচ এস সি পরীক্ষার রুটিন

ডাউনলোড করুন

এইচএসসি এবং আলিম পরীক্ষা ২০২১ সালের ০১ এপ্রিল থেকে শুরু হবে।  সাধারণত, এসএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পরে, এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। এই বছর এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারিতে শুরু হবে ফলে এইচএসসি পরীক্ষা এপ্রিল মাসে শুরু হবে। এখন পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার সঠিক তারিখ এবং সময় অপেক্ষা করতে হবে।২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশের পরে, আমরা এখানে পোস্ট করব। এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা আমাদের সাইট থেকে পিডিএফ বা ছবি ডাউনলোড করতে পারেন।

বাংলাদেশের ১০ টি শিক্ষা বোর্ডে একযোগে পরীক্ষা শুরু হবে। দশটি শিক্ষা বোর্ড হ’ল:

  • ঢাকা বোর্ড
  • রাজশাহী বোর্ড
  • কুমিল্লা বোর্ড
  • দিনাজপুর বোর্ড
  • সিলেট বোর্ড
  • বরিশাল বোর্ড
  • চট্টগ্রাম বোর্ড
  • যশোর বোর্ড
  • মাদ্রাসা বোর্ড ও
  • কারিগরি বোর্ড

পরীক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকরা এখন বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের জন্য এইচএসসি রুটিন ২০২১ খুঁজে থাকে । উদাহরণস্বরূপ এইচএসসি রুটিন ২০২১ ঢাকা বোর্ড, এইচএসসি রুটিন ২০২১ রাজশাহী বোর্ড, কুমিল্লা বোর্ড এইচএসসি রুটিন ২০২১, এইচএসসি রুটিন ২০২১ চট্টগ্রাম বোর্ড, মাদ্রাসা বোর্ড এইচএসসি রুটিন ২০২১, কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি রুটিন ২০২১, সিলেট বোর্ড, যশোর বোর্ড এইচএসসি রুটিন 202১ এবং বরিশাল বোর্ড এইচএসসি রুটিন 202১।

সব সময়ের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে একটিভ থাকুনঃ ? The Next Web BD


এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০২১,এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন 2021, এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন পরিবর্তন,এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন পরিবর্তন ২০২১,এইচএসসি পরীক্ষা ২০২১এর রুটিন,২০২১ এর এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন,এইচএসসি পরীক্ষার নতুন রুটিন,এইচএসসি পরীক্ষার পরিবর্তিত রুটিন, 2021 সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন,উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রুটিন ২০২১, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ডেট,উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা কবে থেকে,উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা কবে থেকে শুরু,উচ্চ মাধ্যমিক রুটিন 2021,এইচএসসি-পরীক্ষা-সংক্রান্ত ,এইচএসসি-পরীক্ষা-সংক্রান্ত তথ্য,কবে হবে এইচএসসি পরিক্ষা,এইচএসসি পরিক্ষা তথ্য,

 

Leave a Comment